চাঁদপুর, বুধবার ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০ ভাদ্র ১৪২৬, ৪ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


০৫। যাহারা আল্লাহ ও তাহার রাসূলের বিরুদ্ধাচরণ করে, তাহাদিগকে অপদস্থ করা হইবে যেমন অপদস্থ করা হইয়াছে তাহাদের পূর্ববর্তীদিগকে; আমি সুস্পষ্ট আয়াত অবতীর্ণ করিয়াছি; কাফিরদের জন্যে রহিয়াছে লাঞ্চনাদায়ক শাস্তি।


 


 


 


 


assets/data_files/web

কোনো কোনো সময় প্রকৃতি বিদ্রোহ করলে মানুষ তার সুযোগ গ্রহণ করে। -ইয়ং।


 


 


দাতার হাত ভিক্ষুকের হাত অপেক্ষা উত্তম। যে ব্যক্তি স্বাবলম্বী ও তৃপ্ত হতে চায়, আল্লাহ তাকে স্বাবলম্বন ও তৃপ্তি দান করেন।


 


 


ফটো গ্যালারি
আমার লক্ষ্য বিকেএসপিতে ভর্তি হয়ে ক্রিকেটার হওয়া
-----------------------------রিয়াজ উদ্দিন মিনহাজ
ক্রীড়াকণ্ঠ প্রতিবেদক
০৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বাবা ও মায়ের ইচ্ছা অনুযায়ী এবং নিজের পছন্দের ইভেন্ট ক্রিকেট হওয়ায় নিয়মিত অনুশীলন করে যাচ্ছে এ খুদে ক্রিকেটার। তার নাম রিয়াজ উদ্দিন মিনহাজ। পড়াশোনা করে চাঁদপুর শহরের গণি মডেল হাইস্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে। মায়ের নাম মুক্তা বেগম ও বাবার নাম মোঃ হানিফ দর্জি। বাবা প্রবাসী হলেও ছেলের ক্রিকেট খেলা নিয়ে বেশ আগ্রহ রয়েছে। সে বসবাস করে শহরের মিশন রোড এলাকায়। তারা ১ ভাই ও ১ বোন। ছোট বোন মারিয়া পড়াশোনা করছে উত্তর শ্রীরামদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণিতে। তার মা স্কুল ছুটি হলে ছেলেকে নিয়ে আসেন চাঁদপুর ক্লেমন ক্রিকেট একাডেমিতে।



শুক্রবার বিকেলে অনুশীলন চলাকালে কথা হয় এ খুদে ক্রিকেটারের সাথে। সে জানায় আমার আম্মু আমাকে স্কুল ছুটি হলে নিজে নিয়ে আসেন খেলার মাঠে। আমি গত ৩ বছর ধরে শামিম স্যারের এ একাডেমিতে অনেক বড় ভাই ও ছোটদের সাথে অনুশীলন করি। আমাদের এ একাডেমির অনেক ছাত্রই অনুশীলন করা অবস্থায়ই রাজশাহী ও ঢাকা বিকেএসপিতে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে। আমারও ইচ্ছা আমি যেনো এ একাডেমিতে অনুশীলন করা অবস্থায়ই ভালো ক্রিকেটার হওয়ার জন্যে বিকেএসপিতে সুযোগ পাই। এই ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে যদি সুযোগ পাই তাহলে পড়াশোনার পাশাপাশি আমি খেলাধুলায়ও ভালো করতে পারবো। আমাদের এ একাডেমির অনেক সিনিয়র ভাই যখন বিকেএসপি কিংবা বিভিন্ন ক্লাব থেকে ছুটি পান তখন আমাদের সাথে এসে অনুশীলন করেন। আমি বাম হাতে ব্যাটিং করি। বাম হাতের ব্যাটস্ম্যানদের সংখ্যা খুবই কম। আর আমাকে ভালো ক্রিকেটার হওয়া এবং নিয়মিত মাঠে অনুশীলন করার ব্যাপারে বাবা প্রবাসে থাকলেও নিয়মিত খোঁজখবর নেন।



মিনহাজকে নিয়মিত মাঠে নিয়ে আসেন এবং খেলাধুলার ব্যাপারে খোঁজখবর রাখেন তার মা। তার মায়ের কাছে ক্লেমন ক্রিকেট একাডেমি সম্বন্ধে জানতে চাইলে তিনি বলেন, চাঁদপুরের এ একাডেমিতে আসলে মনে আনন্দ পাই। এখানে অনেক ক্রিকেটারের মা-বাবা প্রতিদিনই আসেন। এখানকার পরিবেশ খুবই ভালো। আমাদের ইচ্ছে ছেলেটা যেনো ভালো ক্রিকেটার হতে পারে। এ একাডেমিতে অনুশীলন করা অনেক খেলোয়াড়ই এখন জাতীয় ক্রিকেট দলের বয়সভিত্তিক দলে খেলছেন। ছেলে ও খেলার প্রতি অনেক আগ্রহ রয়েছে। ও যেনো ভালো ক্রিকেটার হতে পারে এজন্যে সকলের দোয়া কামনা করি।



 



 



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৪৪৭০
পুরোন সংখ্যা