চাঁদপুর। সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। ২৪ মাঘ ১৪২৩। ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮
kzai
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • গলায় সুপারি আটকে ফরিদগঞ্জে এক শিশুর করুণ মৃত্যু || গলায় সুপারি আটকে ফরিদগঞ্জে এক শিশুর করণ মৃত্যু || হাইমচরে অটোবাইক মোটরের সাথে চাদর প্যাচিয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু -- ফরিদগঞ্জে কার্ভাড ভ্যানের ধাক্কায় অটোবাইক চালক আহত || হাইমচরে অটোবাইক মোটরের সাথে চাদর পেছিয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু। ফরিদগঞ্জে কার্ভাড ভ্যানের ধাক্কায় অটোবাইক চালক আহত।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৭। স্মরণ কর সেই সময়ের কথা, যখন মূসা তাহার পরিবারবর্গকে বলিয়াছিলো, ‘আমি আগুন দেখিয়াছি, সত্বর আমি সেথা হইতে তোমাদের জন্য কোনো খবর আনিবো অথবা তোমাদের জন্য আনিবো জ্বলন্ত অঙ্গার, যাহাতে তোমরা আগুন পোহাইতে পারো’।  


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


ঔদ্ধত্য মানুষের জীবনে দুঃখ আনে।


                   -টমাস ক্যাম্বেল।


ধনের যদি সদ্ব্যবহার করা হয় তবে তা সুখের বিষয় এবং সদুপায়ে ধন বৃদ্ধির জন্যে সকলেই বৈধভাবে চেষ্টা করতে পারে।    


 

শিশুর কান পাকা রোগ কেন হয়?
০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শিশুদের কান পাকা রোগ বড়দের তুলনায় বেশি হয়। কিন্তু কেন এটি হয়? এ বিষয়ে কথা বলেছেন ডা. ফুয়াদ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন। বর্তমানে তিনি হলিফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেলের নাক কান গলা বিভাগের পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।



প্রশ্ন : শিশুরা কান পাকা রোগে কেন বেশি আক্রান্ত হয়?



উত্তর : শিশুরা খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রে স্বনির্ভর নয়। খাওয়ার ক্ষেত্রে তারা বাবা-মা বা অন্যদের ওপর নির্ভরশীল। তাদের খাওয়ানোর পদ্ধতিতে যদি ভুল হয়, তাহলে সমস্যা হতে পারে। এদের যদি শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহ বারবার করে হয় এবং এটি যদি একেবারেই চিকিৎসা করা না হয়, তাহলে ওই যে ইউসটেশিয়ান টিউব, যার মাধ্যমে মধ্যকর্ণের সঙ্গে বাইরের একটি ভারসাম্য রক্ষা করা হয় বাতাসের, সেটা যখন ঠিকমতো কাজ করবে না, তখন প্রথম দিকে বারবার করে বস্নক হয়ে কানের পর্দার পেছনে পানি জমবে। এই পানি জমাটা কোনো সংক্রমণ বা প্রদাহজনিত নয়। তবে এটি থেকে গেলে ব্যাকটেরিয়ার প্রদাহের কারণে সংক্রমণ হবে। একসময় দেখা যাবে কানের পর্দাকে ফুটো করে ফেলছে, প্রথম দিকে দেখা যাবে বাচ্চারা বলছে, তার তীব্র কান ব্যথা করে, বিশেষ করে রাতের বেলায়। মা-বাবা তো খুবই চিন্তিত হয়ে যাবে যে কেন বাচ্চাটি এত কান্না করছে, ব্যথা পাচ্ছে। তখন চিকিৎসকের কাছে নিয়ে এলে দেখা যাবে, হয়তো তার কানের পর্দা লাল হয়ে গেছে। একসময় পর্দা ফুটো হয়ে হয়তো কিছু পানি আসবে বা পুঁজ আসবে। এটিও কিন্তু চিকিৎসা করলে একসময় ভালো হয়ে যাচ্ছে। তবে পেছনের কারণগুলো যদি প্রতিরোধ করা না যায় বা প্রতিকার করা না হয়, একসময় সেটি দীর্ঘমেয়াদির দিকে হয়ে যাবে। কানের পর্দা যখন ফুটো হয়ে যাবে, সেটি আর ভালো হতে চাইবে না।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৮০৯৩৫
পুরোন সংখ্যা