চাঁদপুর। সোমবার ১৭ জুলাই ২০১৭। ২ শ্রাবণ ১৪২৪। ২২ শাওয়াল ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • ---------
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৮-সূরা কাসাস 


৮৮ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৮৬। তুমি আশা কর নাই যে, তোমার প্রতি কিতাব অবতীর্ণ হইবে। ইহা তো কেবল তোমার প্রতিপালকের অনুগ্রহ। সুতরাং তুমি কখনও কাফিরদের সহায় হইও না। ’


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


সৌভাগ্যবান হওয়ার চেয়ে জ্ঞানী হওয়া ভালো।


                        -ডাব্লিউ জি বেনহাম।


যাহাদের হৃদয় পবিত্র, দয়া ও সত্যে পূর্ণ, তাহারাই অমৃতলোক বেহেশতের অধিবাসী হবেন।


 

হলুদে রাঙা রূপ
রিফাত পারভীন
১৭ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

স্পাত্বকের যত্নে প্রাচীনকাল থেকেই হলুদের জয়জয়কার। মসলা হলেও রূপচর্চাতেও এর ব্যবহার রয়েছে। হলুদের ছোঁয়ায় গায়ের রং উজ্জ্বল হওয়া থেকে শুরু করে ব্রণ, অ্যালার্জি, পোড়া দাগও দূর করতে পারবেন। অন্য উপকরণের মতো এই উপকরণের ব্যবহার জেনে তবেই ত্বকে ব্যবহার করা উচিত।

রূপবিশেষজ্ঞরা জানান, হলুদ একধরনের জীবাণুনাশক (অ্যান্টিসেপটিক)। এটি ত্বকের ভেতরের জন্যে যেমন ভালো, তেমনি উপকারী ত্বকের ওপরের জন্যেও। তবে অন্য উপকরণের সঙ্গে মিলিয়ে হলুদ ব্যবহার করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। প্রতিদিন নয়, সপ্তাহে এক দিন বা দুই দিন ব্যবহার করলেই ভালো। সতর্কবাণী হিসেবে আরেকটি বিষয়, ত্বকে অ্যালার্জি হওয়ার প্রবণতা থাকলে ব্যবহারে কিছুটা সতর্ক হয়ে যান।

শুষ্ক, সাধারণ, তৈলাক্ত ত্বকভেদে হলুদের ব্যবহারও ভিন্ন হয়ে থাকে। তৈলাক্ত ত্বকের জন্যে হলুদের সঙ্গে কাঁচা দুধ, বেসন/আটা/ময়দা, মধু, লেবু ব্যবহার করা যায়। ত্বক শুষ্ক হলে অবশ্যই মধুর বদলে টক দই ব্যবহার করুন। ত্বক যে ধরনেরই হোক না কেন, হলুদ ব্যবহারের পরপরই রোদে বের না হওয়ার পরামর্শ দিলেন রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা। এতে করে ত্বক জ্বলে যেতে পারে। এ কারণে রাতের সময়টিকেই বেছে নিন।

উজ্জ্বলতা বাড়াতে :

হলুদের সঙ্গে গাজরের রস, বেসন, জলপাই তেল মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে।

স্ক্রাবের কাজে :

চালের গুঁড়ার সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে হালকা ঘষে তুলে ফেলার কাজটি করতে গেলেই তা প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবেই উপকার দেবে।

ব্রণ দূর করতে :

হলুদের মধ্যে অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকে, যা ব্রণ দূর করতে ভালো কাজ করে। কাঁচা হলুদের সঙ্গে চন্দন গুঁড়া, লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

পোড়া দাগ দূর করতে :

ত্বকের পোড়া দাগ দূর করতে হলুদ বাটা, মুলতানি মাটি, শসার রস ও লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেললে পোড়া দাগ হালকা হয়ে আসবে অনেকাংশে।

চর্মরোগ কমাতে :

ত্বকে নানা ধরনের অ্যালার্জি, র্যাশ থাকে যা হলুদের মাধ্যমে দূর করা যায়। কাঁচা হলুদের সঙ্গে কাঁচা দুধ মিশিয়ে সারা গায়ে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।

তারুণ্য ধরে রাখতে :

১ দিন পরপর বেসন গুঁড়া, কাঁচা হলুদ, টক দই মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে না শুকানো পর্যন্ত রাখুন এবং পরে স্ক্রাবের মতো করে তুলে ফেলুন। এটি ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে।

চোখের নিচে কালো দাগ :

২/৩ চিমটি হলুদ গুঁড়ার সঙ্গে মাখন মিশিয়ে চোখের নিচে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলুন।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৩৬২৮৩
পুরোন সংখ্যা