চাঁদপুর। সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০১৭। ২৯ কার্তিক ১৪২৪। ২৩ সফর ১৪৩৯

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • ---------
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩১-সূরা লোকমান


৩৪ আয়াত, ৪ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩৩। হে মানবজাতি!  তোমরা তোমাদের পালনকর্তাকে ভয় করো এবং ভয় করো এমন এক দিবসকে, যখন পিতা পুত্রের কোনো কাজে আসবে না এবং  পুত্রও তার পিতার কোনো উপকার করতে পারবে না, নিঃসন্দেহে আল্লাহর ওয়াদা সত্য। অতএব, পার্থিব জীবন যেন তোমাদেরকে ধোঁকা না দেয় এবং আল্লাহ সম্পর্কে প্রতারক শয়তানও যেন তোমাদেরকে প্রতারিত না করে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


 


দুপুরের খাবার গ্রহণের পর সামান্য বিশ্রাম নিও এবং রাতের খাবারের পর পূর্ণ বিশ্রাম নিও।                                         


                        -ডাব্লিউ টি হেলমুর্থ।


যে ব্যক্তি (অভাবগ্রস্ত না হয়ে) ভিক্ষা করে, কেয়ামতের দিন তার কাপালে একটি প্রকাশ্য ঘা হবে ।


 

গর্ভধারণ ও হৃদরোগ ঝুঁকি সম্পর্কে জানুন
১৩ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


গর্ভকালীন নারীদের শারীরিক ও মানসিকভাবে নানা পরিবর্তন দেখা দেয়। এই সময়ে প্রতিটি মুহূর্ত আপনাকে থাকতে হবে সতর্ক। সামান্য ভুলের কারণে আপনি ও আপনার গর্ভের সন্তান পড়তে পারেন নানা ধরনের ঝুঁকিতে। গর্ভাবস্থায় বিভিন্ন জটিলতা এড়াতে গর্ভকালীন পরিচর্যা নেয়া খুবই প্রয়োজন। ঋতুস্রাব বন্ধ হওয়ার পরই সময় নষ্ট না করে অতি দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত। এছাড়া পরিবারের প্রতিটি সদস্যের মানসিক প্রস্তুত হতে হবে একজন গর্ভবতী নারীর পরিচর্যা সম্পর্কে।



গর্ভাবস্থায় হার্ট এবং রক্ত সংবহনতন্ত্রে অতিরিক্ত চাপ বজায় থাকে। গর্ভাবস্থায় ৩০ থেকে ৫০ শতাংশ রক্তের ভলিউম বৃদ্ধি পায় এবং প্রতি মিনিটে রক্তের পাম্প ৩০ থেকে ৫০ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। এ পরিবর্তনগুলোর জন্যে রোগীর জটিল হৃদরোগের ঝুঁকির আশঙ্কা রয়েছে। প্রসব বেদনা ও প্রসবের সময়ও হার্টের ওপর কাজের চাপ বাড়ে। ফলে শরীরে রক্ত প্রবাহ এবং রক্তচাপের আকস্মিক পরিবর্তন অনুভব হবে। এর ফলে শিশু জন্মের পর জরায়ুতে রক্তের প্রবাহ কমে যায়।



 



ঝুঁকিগুলো কী : হৃদরোগের প্রকৃতি ও তীব্রতার ওপর ঝুঁকি নির্ভর করে।



হার্টের রিদম : ক্ষুদ্র রিদম অস্বাভাবিকতা, যা সাধারণত গর্ভাবস্থায় হয়ে থাকে। বিষয়টি উদ্বেগের কোনো কারণ নয়।



হার্ট ভালভ বিষয় : রোগীর যদি কৃত্রিম হৃৎপি-ের ভালভ থাকে বা ভালভ বিক্ষত অথবা বিকৃত হয় তা হলে রোগী গর্ভাবস্থায় বর্ধিত জটিল ঝুঁকির মধ্যে থাকেন। হার্ট এবং হার্টের ভালভের আস্তরণের সংক্রমণ কৃত্রিম বা অস্বাভাবিক ভালভের এন্ড্রোকার্ডাটাইটিস বা বর্ধিত ঝুঁকি বহন করে।



কনজেসটিভ হার্ট ফেলিওর : জন্মগত হার্টের ত্রুটি। এ সমস্যা থাকলে অনাগত শিশুরও জন্মগত হার্টের ত্রুটির ঝুঁকি বেশি। এ ছাড়াও শিশু অকাল জন্মের ঝুঁকিতে থাকে। কিছু হৃদরোগ গর্ভাবস্থায় অনেক বেশি জটিলতার সৃষ্টি করে। মিটরাল ভালভ বা মহাধমনির ভালভের সমস্যাসহ কিছু হৃদরোগ মা বা শিশুর জীবনের অস্তিত্বের জন্যে হুমকিস্বরূপ।



গর্ভাবস্থায় ওষুধের সঙ্গে ঝুঁকির সম্পর্ক : গর্ভাবস্থায় কোনো কোনো ওষুধ শিশুকে প্রভাবিত করতে পারে। যদিও হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণের জন্যে ওষুধের প্রয়োজন। এক্ষেত্রে আপনার স্বাস্থ্যের যত্ন প্রদানকারী ডাক্তার উপযুক্ত ডোজে আপনাকে নিরাপদ ওষুধ দেবেন। নির্ধারিত ওষুধ নিন, ওষুধ গ্রহণ বন্ধ বা নিজের মতো করে ডোজ সমম্বয় করবেন না।



গর্ভাবস্থায় প্রস্তুতির জন্যে কী করা উচিত : আপনি গর্ভ পরিকল্পনার চেষ্টা করার আগে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ এবং আপনার স্বাস্থ্যের যত্ন ডাক্তারের সঙ্গে একটি এপয়েন্টমেন্ট করুন।



 



লেখক : অধ্যাপক ডাঃ মোহাম্মদ সাইফউল্লাহ, বিভাগীয় প্রধান, হৃদরোগ বিভাগ, মুন্নু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।



সূত্র : যুগান্তর।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯০৮৩
পুরোন সংখ্যা