চাঁদপুর। সোমবার ১ অক্টোবর ২০১৮। ১৬ আশ্বিন ১৪২৫। ২০ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪২-সূরা শূরা


৫৪ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১২। আকাশম-লী ও পৃথিবীর চাবিসমূহ তাঁরই নিকট। তিনি যার প্রতি ইচ্ছা তার রিযিক বর্ধিত করেন অথবা সংকুচিত করেন। তিনি সর্ববিষয়ে সর্বজ্ঞ।


১৩। তিনি তোমাদের জন্যে নির্ধারণ করেছেন দ্বীন, যার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি নূহকে আর যা আমি ওহী করেছিলাম তোমাকে এবং যার নির্দেশ দিয়েছিলাম ইবরাহীম, মূসা ও ঈসাকে, এই বলে যে, তোমরা এই দ্বীনকে (তাওহীদকে) প্রতিষ্ঠিত কর এবং ওতে মতভেদ করো না। তুমি মুশরিকদেরকে যার প্রতি আহ্বান করছো তা তাদের নিকট কঠিন মনে হয়। আল্লাহ যাকে ইচ্ছা তাঁর জন্য চয়ন করে নেন এবং যে তাঁর দিকে প্রত্যাবর্তন করেন, তাকে দ্বীনের দিকে পরিচালিত করেন।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


আমি চলে গেলে যদি কেউ না কাঁদে তবে আমার অস্তিত্বের কোনো মূল্য নেই। -সুইফট।


 


 


নামাজে তোমাদের কাতার সোজা কর, নচেৎ আল্লাহ তোমাদের অন্তরে মতভেদ ঢালিয়া দিবেন।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
হাড় ক্ষয় চিকিৎসায় হোমিও প্রতিবিধান
ডাঃ মুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ
০১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

হাড় ক্ষয় মূলত একটি সমস্যা, যা হাড়ের মূল গঠন উপাদান অস্বাভাবিক ভাবে কমে যাওয়ার কারণে বা উভয় কারণেই ঘটতে পারে। এর প্রভাবে হাড় স্বাভাবিকের তুলনায় অধিক পরিমাণে দুর্বল ও ভঙ্গুর হয়ে যায় এবং সামান্য আঘাতেই হাড় ভেঙ্গে যেতে পারে।

কারণগুলো : যখন শরীরের হাড় স্বাভাবিকের চেয়ে কম মিনারেল ধারণ করে তখন তা কম শক্তিশালী থাকে এবং সেই সঙ্গে ভেতরের ক্ষয়ের পরিমাণও বাড়ে। তরুণদের ক্ষেত্রে নতুন হাড় তৈরির মাত্রা হাড় ক্ষয়ের চেয়ে বেশি এবং বয়স্কদের ক্ষেত্রে হাড় ক্ষয়ের মাত্রা হাড় তৈরির চেয়ে বেশি। তারপরও হাড় ক্ষয়জনিত ক্ষতি অনেক অল্প বয়সেও শুরু হতে পারে। কারণ হাড়ের সর্বোচ্চ ঘনত্ব সাধারণত ২৫ বছরের মধ্যে চূড়ান্ত মাত্রায় পেঁৗছে। কাজেই এই সময়ের ভিতরে শক্তিশালী হাড় গঠন খুব জরুরি, যাতে হাড় পরবর্তী জীবনে শক্তিশালী থাকে।

যে কারণে হাড় ক্ষয়ের প্রবণতা বাড়ে : ৬০ বছর বা তদুর্ধ্ব পুরুষের তুলনায় মহিলাদের অবস্থান অধিক ঝুঁকিপূর্ণ। পরিবারের অন্য সদস্যদের হাড় ক্ষয়ের ইতিহাস থাকা, জীবনের তৃতীয় দশকে সর্বোচ্চ হাড়ের ঘনত্ব কম থাকা, অল্প বয়সে মাসিক বন্ধ হওয়া বা স্বল্প ওজন এবং কায়িক পরিশ্রমহীনতা, অতিমাত্রায় কোমল পানীয় গ্রহণ; হেপারিন, কর্টিক, স্টেরয়েড বা খিঁচুনি রোধক ওষুধ দীর্ঘদিন সেবন ; হাইপার করটিসনিসম, গোনাডাল হরমোনের স্বল্পতা, থাইরয়েড ও প্যারাথাইরয়েড হরমোনের আধিক্য, হাড়ে ক্যান্সার ছড়িয়ে যাওয়া ইত্যাদি এই ঝুকির কারণ।

হাড় ক্ষয়ের লক্ষণ : প্রাথমিক অবস্থায় কোন লক্ষণ প্রকাশ না করে পরে ক্ষয়জনিত কিছু কিছু লক্ষণ প্রকাশ পেতে পারে। শরীরের বিভিন্ন মাংসপেশী এবং হাড়ের ভোঁতা ব্যথা বিশেষত শরীরের ওজন বহনকারী জোড়া যেমন মেরুদ-ের হাড়, কোমর অথবা ঘাড়ে ব্যথা; শরীরের পিছনের অংশে মেরুদ-ের তীব্র ব্যথা, শরীরের উচ্চতা হ্রাস পাওয়া, শারীরিক গঠন বা উচ্চতার বিকৃতি বা বিচ্যুতি, স্বল্প আঘাত বা দুর্ঘটনাতেই মেরুদ-ে আঘাত ইত্যাদি।

* রোগ নির্ণয়ের জন্য পরীক্ষা : শরীরের ক্ষতিগ্রস্ত অংশের এঙ্-রে বোন মিনারেল ডেনসিটি।

* প্রতিরোধে করণীয় : ন্যাশনাল অস্টিওপোরোসিস ফাউন্ডেশনের গাইট লাইন অনুযায়ী অস্টিওপোরোসিস প্রতিরোধে ত্রিশোর্ধ্ব প্রতিটি মানুষের প্রতিদিন নূ্যনতম ১২০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম ও ৪০০-৮০০আইইউ ভিটামিন-ডি গ্রহণ, প্রতিদিন মাংসপেশী সুদৃঢ়করণ এবং ওজন উত্তোলক ব্যায়াম, নিয়মিত কায়িক পরিশ্রম, ধূমপান সস্পূর্ণরূপে বর্জন, অতিরিক্ত মদ্যপান পরিহার, খাদ্যভ্যাস নিয়ন্ত্রণ ও অতিরিক্ত ওজন হ্রাস।

* হোমিও প্রতিবিধান : রোগ নয় রোগিকে চিকিৎসা করা হয়। এই জন্য একজন অভিজ্ঞ হোমিও চিকিৎসকে রোগীর পুরা লক্ষণ নির্বাচন করে হাড় ক্ষয়ের রোগীর চিকিৎসা দিতে পারলে তাহলে আল্লাহর রহমতে এইসব রোগী হোমিওতে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব।

অভিজ্ঞ চিকিৎসকগণ যেসব ওষুধ নির্বাচন করে থাকেন : এরাম ট্রাইফাইলাম, ক্যালমিয়া, ন্যাজা, জিম্কাম মেট, আয়োডাম, প্যারিস, এসিড ফ্লুয়োরিক, লাইসিন, স্ট্রামোনিয়াম, ল্যাকেসিস, আর্নিকা, কোবাল্টাম, সাইলিসিয়া, রাস টঙ্সহ আরো অনেক ওষুধ লক্ষণের উপর আসতে পারে।

লেখক : স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা, হিউম্যান রাইটস রিভিউ সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটি, কো-চেয়ারম্যান, হোমিওবিজ্ঞান গবেষণা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। ফৎসধুবফ৯৬@মসধরষ.পড়স

আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৯৯৪০৩
পুরোন সংখ্যা