চাঁদপুর, বুধবার ৩১ জুলাই ২০১৯, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৭ জিলকদ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরে স্কুল শিক্ষিকা জয়ন্তীর চাঞ্চল্যকর হত্যার রহস্য উদঘাটন * হত্যাকারী ডিস ব্যবসায়ী লাইনম্যান জামাল ও আনিসুর রহমান আটক
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৪-সূরা কামার


৬২ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৪। উহাদের নিকট আসিয়াছে সুসংবাদ, যাহাতে আছে সাবধান বাণী;


৫। ইহা পরিপূর্ণ জ্ঞান, তবে এই সতর্কবাণী উহাদের কোনো উপকারে আসে নাই।


৬। অতএব তুমি উহাদের উপেক্ষা কর। যেদিন আহ্বানকারী আহ্বান করিবে এক ভয়াবহ পরিণামের দিকে,


 


 


 


প্রতিদিনের সূর্যালোকের সঙ্গে সঙ্গে নূতন নূতন আশার জন্ম হয়।


-টমাস হুগস।


 


 


ন্যায়পরায়ণ বিজ্ঞ নরপতি আল্লাহ'র শ্রেষ্ঠ দান এবং অসৎ মূর্খ নরপতি তার নিকৃষ্ট দান।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
এডিস মশা ও ডেঙ্গু জ্বরে সামপ্রতিক বাংলাদেশ
এইচএম জাকির
৩১ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


এডিস এক প্রকার মশা, ডেঙ্গু ও পীত জ্বরের মত মারাত্মক দু'টি রোগের বাহক। এটি Arthropoda পর্বের Insecta শ্রেণীভুক্তCulicinae পরিবারের প্রাণী।



ডেঙ্গু জ্বর যা ব্রেকবোন ফিভার নামেও পরিচিত। এটি একটি সংক্রামক ট্রফিক্যাল ডিজিজ যা ডেঙ্গু ভাইরাসের কারণে হয়।



যে উপসর্গগুলো দেখা যায় তার মধ্যে আছে জ্বর, মাথাব্যথা, পেশী এবং গাঁটে ব্যথা এবং একটি বৈশিষ্ট্য ত্বকে রেশ যা হামজ্বরের সমতুল্য। স্বল্প ক্ষেত্রে অসুখটি প্রাণঘাতী ডেঙ্গু হেমোরেজিক ফিভার-এ পর্যবসিত হয়। যার ফলে রক্তপাত, রক্ত অনুচক্রিকার কম মাত্রা এবং রক্ত প্লাজমার নিঃসরণ অথবা ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোম-এ পর্যবসিত হয়, যেখানে রক্তচাপ বিপজ্জনকভাবে কম থাকে।



ডেঙ্গু প্রজাতি এডিস-এর বিভিন্ন প্রকার মশা দ্বারা পরিবাহিত হয়। এটি একটি ভাইরাস ঘটিত ছোঁয়াচে রোগ। এই ভাইরাসটি চার প্রকারের। এর একটি প্রকারের সংক্রমণ সাধারণতঃ জীবনভর সেই প্রকারে প্রতিরোধ ক্ষমতা দেয়, কিন্তু অন্য প্রকারগুলোতে শুধুমাত্র স্বল্পমেয়াদী প্রতিরোধ ক্ষমতা দেয়। অন্য প্রকারের পরবর্তী সংক্রমণ প্রবল জটিলতার ঝুঁকি বৃদ্ধি করে। যেহেতু কোনো ভ্যাকসিন নেই, মশার সংখ্যা বৃদ্ধির অনুকূল পরিবেশ ও মশার সংখ্যা বৃদ্ধি হ্রাস এবং মশার কামড়ের সম্ভাবনা কমানোর মাধ্যেমে প্রতিরোধ প্রয়োজন।



উল্লেখ্য যে, এডিস মশা কখনোই অন্ধকারে কামড়ায় না। এটি দিনের আলোতেই কামড়ায়, বিশেষ করে সকাল বেলায় এবং সন্ধ্যার পূর্ব মুহূর্তে কামড়ানোর প্রবণতাই বেশি। এ থেকে বাঁচতে দিনের বেলায়ও মশারি টানিয়ে ঘুমানোই শ্রেয়।



অ্যাকিউট ডেঙ্গুর চিকিৎসা শায়ক প্রকৃতির, স্বল্প বা মাঝারি রোগের ক্ষেত্রে রিহাইড্রেশন ওরাল বা ইন্ট্রাভেনাস পদ্ধতিতে ইন্ট্রাভেনাস ফ্লুইভ এবং আরো প্রবল ক্ষেত্রে বস্নাড ট্রান্সফিউশন।



ডেঙ্গু জ্বরের ঘটনা ১৯৬০ সালের পর থেকে উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্বে প্রতি বছর প্রায় ৫০-১০০ মিলিয়ন লোক এতে আক্রান্ত হয়। ১৭৭৯ সালে এর প্রথম উল্লেখ পাওয়া যায় এবং এর ভাইরাস ঘটিত কারণ ও সংক্রমণ বিষয়ে বিশদ জানা যায় বিংশ শতকের প্রথম ভাগে।



দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময় থেকে ডেঙ্গু দুনিয়াজুড়ে সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় এবং ১১০টিরও বেশি দেশে মহামারী আকার নেয়।



সমপ্রতি বাংলাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত কয়েক দিনে স্বাস্থ্য বিভাগের সিভিল সার্জনসহ তিন ডাক্তার এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রসহ বেশ কয়েকজনের প্রাণ কেড়ে নিলো এডিস মশা। সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও উল্লেখযোগ্যহারে ডেঙ্গু রোগী বৃদ্ধি পাচ্ছে। এরই মধ্যে চাঁদপুর সদরের শাহতলী গ্রামের ২৬ বছর বয়সী এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে।



এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এরই মধ্যে সকল জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা, জেলা ও উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদসহ সকল পর্যায়ে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত আছে।



লেখক : সংগঠক ও সমাজকর্মী, তথ্যসূত্র : গুগল।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৫৬৩৩৩
পুরোন সংখ্যা