বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জন আহত
  •   ট্রলারে র‍্যাবের অভিযানে প্রচুর গাঁজা জব্দ
  •   কচুয়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি
  •   হাজীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
  •   বাঘেরহাটের যুবতী ১০ কেজি গাঁজাসহ হাজীগঞ্জ গ্রেফতার

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২২:০০

হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ শিক্ষার্থী নাজিমের সাফল্য আকাশচুম্বী

কামরুজ্জামান টুটুল
হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ শিক্ষার্থী নাজিমের সাফল্য আকাশচুম্বী

হাজীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের সদ্য সাবেক শিক্ষার্থী নাজিম উদ্দিন। দেশের নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে নাজিম পেয়েছে আসম্ভব সাফল্য। নাজিমের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল দেখলে যে কারো চক্ষু চড়াকগাছ হবেই হবে। প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে (C-Unit) ৮০৫তম স্থান অর্জন, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ পরিবর্তন (D-Unit) বিভাগে ৮৫তম স্থান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সি ইউনিটে ২৮৫তম হয়ে মেধা তালিকায় স্থান, উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি ইউনিটে ৩০তম স্থান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বি ইউনিটে ৪৮৫ তম হওয়ার গৌরব অর্জন করে নাজিম উদ্দিন।

তার পরবর্তী টার্গেট বিএমএ লং কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা। সে ওখানেও সাফল্যের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবে বলে হাজীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের সকল শিক্ষকগন আশাবাদী। নাজিমরাই হোক হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের মডেল।

নাজিমকে নিয়ে হাজীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি প্রভাষকমো: কামরুল হাছান তার নিজের ফেইজবুক পেজে লিখেছেন। যা নিছে তুলে ধরা হলো।

নাজিম_সমাচার : একজন ভাল শিক্ষার্থীর গল্প

নাম তার মো: নাজিম উদ্দিন। হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের একজন শিক্ষার্থী। এখন অবশ্য তার পরিচয় সাবেক সফল শিক্ষার্থী। নাজিম যদিও আমাদের ডিপার্টমেন্টর না, তবুও তাকে নিয়ে আমাদের আগ্রহ ছিল। থাকার অবশ্য কারণও আছে। নাজিম যখন ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হয় তখনই তাকে নিয়ে একটি হইচই হয়। তার কারণ সে এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ ৫ প্রাপ্ত ছিল। সাধারণত আমাদের উপজেলার ভাল শিক্ষার্থীরা পাস করে ঢাকা মুখী হতে চায়। হয়তো তারও ইচ্ছে ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সে হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজই ভর্তি হয়। এরপর থেকে কলেজে যত পরীক্ষা হয়েছে সবগুলোতেই সে প্রথম স্থান অধিকার করত। টেস্ট পরীক্ষায় ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত একমাত্র শিক্ষার্থীও ছিল সে। কিন্তু নাজিমের দুর্ভাগ্য সে ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে পারেনি। তাই আমাদেরও পরখ করা সম্ভব হয় নি আসলেই সে কতটা ভাল স্টুডেন্ট। করোনার থাবায় সবকিছু লণ্ডভণ্ড। অবশ্য তার পূর্ববর্তী ভালো রেজাল্টর কারণে ২০২০ সালের অটো পাসেও সে গোল্ডেন জিপিএ ৫ পায়। এরপর তার চ্যালেঞ্জ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি। করোনার কারণে দীর্ঘ দিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষা পিছিয়ে যায়। কিন্তু নাজিম তার লক্ষ্যে ছিল অবিচল। যার ফলাফল ইতিমধ্যে সে পাওয়া শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ থেকে এবার আরো দু'জন শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে। তারা হলেন মো: সাকিব মুন্সি ও নিশিতা সুলতানা গল্প। অন্য কোনদিন তাদের সম্পর্কে গল্প বলবো সে প্রত্যাশা রেখে আরো যারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছে তাদের সবার মোঙ্গল কামনা করে আজকে এখানেই শেষ করছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়