চাঁদপুর, সোমবার, ৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ৯ মহররম ১৪৪৪  |   ২৯ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরে ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ
  •   গলায় ফাঁস লাগিয়ে কিশোরের আত্মহত্যা
  •   জমি খারিজের নামে হাতিয়ে নিলেন বিপুল পরিমাণ টাকা
  •   কিশোর গ্যাং গড়ে উঠার আগেই নির্মূল করতে হবে : মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম
  •   ডিবি পুলিশের অভিযানে আন্তঃ জেলা প্রতারকচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশ : ২৩ আগস্ট ২০২১, ২০:০৪

জেলা সিএনজি মালিক সমিতির সিদ্ধান্ত

যাত্রীদের হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ প্রকৃত ব্যক্তির কাছে ফিরিয়ে দেয়া হবে

মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল
যাত্রীদের হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ প্রকৃত ব্যক্তির কাছে ফিরিয়ে দেয়া হবে

রতিদিন হাজার হাজার যাত্রী বহন করে থাকে সিএনজি অটোরিকশা, মানুষের প্রয়োজনে একস্হান থেকে অন্য স্থানে যাতায়াত করতে হয় যাত্রীদের। অনেক সময় তাড়াহুড়া করতে গিয়ে মূল্যবান জিনিসপত্র ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র স্কুটারে রেখেই চলে যান অনেকেই। এসব মূল্যবান জিনিসপত্র না পেয়ে দিকবিদিক ছুটাছুটি করতে হয় যাত্রীদের।

যাত্রীদের এসকল সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে চাঁদপুর জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা মালিক সমিতি সবসময়ই তৎপর থাকতে দেখা গেছে। সমিতি কর্তৃক প্রত্যেক চালকদের এ বিষয়ে নির্দেশ দেয়া হয়। কোন যাত্রী ভুল বসত কোন ব্যাগ অথবা প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গাড়ীতে ফেলে চলে গেলে সেই সকল জিনিস পত্র সমিতি কার্যালয়ে জামা দিতে হয়। এরপর সমিতির ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমে তা সকলের কাছে এ বার্তা পৌঁছে দেয়া হয় এমনকি যানজট নিরসনে শাহরাস্তি গেইট দোয়াভাঙ্গায় সচেতনতা মূলক প্রচারণায় ব্যবহত মাইকের মাধ্যমে প্রচার করা হয়।

তেমনি গত ২২ আগষ্ট বিকালে কচুয়া উপজেলার পিপলকরা গ্রামের কাজী মোস্তফা কামাল কচুয়া থেকে কালিয়াপাড়ায় আসার পথে তার মূল্যবান জিনিসপত্র সিএনজি স্কুটারে রেখেই চলে যান। স্কুটার চালক ব্যাগটি পেয়ে সমিতির কার্যালয়ে জামা দিলে সমিতির পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়। সংবাদ পেয়ে কাজী মোস্তফা কামাল সমিতির কার্যালয়ে উপস্থিত হলে সমিতির সভাপতি মোঃ আব্দুল হোসেন মজুমদার তার হাতে ব্যাগটি তুলে দেন। ব্যাগটি পেয়ে সমিতির সভাপতির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

এমনি করে বর্তমানে সমিতির কার্যালয়ে আরো প্রায় ২০ ব্যাগ জমা রয়েছে প্রায় এক বছর ধরে। বিভিন্ন ভাবে প্রচার প্রচারণা করেও ব্যাগ গুলোর প্রকৃত মালিকের সন্ধান না পাওয়ায় ব্যাগ গুলো এতিম অসহায় গরীব জনগণের মাঝে বিলিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কতৃপক্ষ। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কেউ না আসলে ব্যাগ গুলো বিলিয়ে দেয়া হবে।

সমিতির সভাপতি মোঃ আবুল হোসেন মজুমদার বলেন, আমার যাত্রীদের জিনিস পত্র তাদের হাতে তুলে দিয়ে তৃপ্তি পাই, এ পর্যন্ত বহুযাত্রী তাদের হারিয়ে যাওয়া জিনিস পত্র ফিরে পেয়েছেন। প্রায় এক বছর যাবৎ কিছু ব্যাগ আমাদের কাছে রয়ে গেছে কেউ নিতে আসেনি। তাই এসকল ব্যাগ গরীব এতিম অসহায় জনগনের মাঝে বিলিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, ব্যাগ গুলোর মধ্যে নতুন পুরাতন জামা কাপড় ও কিছু টাকা রয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়