রোববার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ৮ মাঘ ১৪২৮  |   ২৪ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরে করোনা উপসর্গে এক নারীর মৃত্যু
  •   হাইমচরে মৎস্য ব্যবসায়ীর মৃত্যু নিয়ে দুম্র্রজাল
  •   ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে কামাল হোটেল মালিক আটক
  •   হাজীগঞ্জে হামিদিয়া জুট মিলে দেয়াল চাপায় শ্রমিক নিহত
  •   হাইমচরে বিষপানে গৃহবধূর আত্মহত্যা : পরিবারের দাবী হত্যা

প্রকাশ : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:১৬

ভ্যাটের জন্য পণ্য জব্দ করেছে কাস্টমস, ক্ষুব্দ ব্যবসায়ীরা

মিজানুর রহমান
ভ্যাটের জন্য পণ্য জব্দ করেছে কাস্টমস, ক্ষুব্দ ব্যবসায়ীরা

ভ্যাটের জন্য ঢাকা থেকে আনা চাঁদপুরের অনেক ব্যবসায়ির বিপুল পরিমান বিভিন্ন পণ্য জব্দ করেছে কাস্টমস।

এতে সাধারণ ব্যবসায়ীরা হয়রানির শিকার হলে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

জানা যায় চাঁদপুরের বিভিন্ন মার্কেট বিপনী বিতান সহ অন্যান্য দোকানের বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি করার জন্য ঢাকার মোকাম থেকে চাঁদপুর নিয়ে আসেন ব্যবসায়ীদের ওই সব পণ্য নদীপথে এবং ট্রান্সপোর্ট এর মাধ্যমে চাঁদপুর আনা হয়।

হঠাৎ করে গত রোববার কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগ চাঁদপুর এর ভ্যাট গোয়েন্দা টিম শহরের নতুন বাজার সেভেন স্টার ট্রান্সপোর্ট এজেন্সিতে গিয়ে একটি কভার্ডভ্যানে থাকা স্থানিয় প্রায় ২০/২৫ জন ছোট বড়  ব্যবসায়িদের আনা সকল পণ্য জব্দ করে নিয়ে যায়। এতে চরম বিপাকে পড়েন ব্যবসায়ীরা।

ক্ষুব্দ ব্যবসায়িরা জানান,আমরা ঢাকা থেকে বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে ঘুরে প্রয়োজনীয় পণ্য কিনে চাঁদপুরে এনে বিক্রি করে আসছি।কখনো কাস্টমস ভ্যাটের জন্য আমাদের মালামাল নিয়ে যায়নি।আমরা পণ্য বিক্রি করলে তারপর ভ্যাটের বিষয়টি আসত।ঢাকায় যারা রেডিমেট পোষাক,শাড়ি লুঙ্গি,থান কাপড়, কসমেটিক, যন্ত্রপাতি, লোহা লক্কর, ইলেকট্রনিক সামগ্রী সহ অন্যান্য পণ্য বিক্রি করেন তাদের কাছ থেকে ভ্যাট নেয়ার নিয়ম। এখানকার ব্যবসায়ীদের সাথে কোনো আলাপ-আলোচনা না করে ভ্যাটটের চালান নেই এ কথা বলে আমাদের মালামাল নিয়ে যাওয়া কাস্টমসের ঠিক হয়নি।

শহরে একাধিক ব্যবসায়ী জানান, করোনা মহামারীর কারণে প্রায় দুই বছর চাঁদপুরের মার্কেট বিপণিবিতান ও অন্যান্য দোকানদার ব্যবসায়ীদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে।

এই পরিস্থিতিতে সাধারণ ব্যবসায়ীরা হয়রানির শিকার হচ্ছে।

এ বিষয়ে কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট বিভাগ চাঁদপুরের সহকারী কমিশনার

নুরের জামান বলেন,

পণ্য/সেবা কেনার সময় ভ্যাট চালানপত্র বুঝে নিতে হয়।সরকারের রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রে আইন মেনে ভ্যাটের কাগজ না থাকায় আমরা এ অভিযান করেছি।যাতে ব্যবসায়িরা পণ্যের ভ্যাট দেয়ার ক্ষেত্রে সজাগ ও সর্তক হয়।

যাদের মালামাল আনা হয়েছে আইন অনুুযায়ী ভ্যাটের চালানপত্র করে তাদের মালামাল দিয়ে দেয়া হচ্ছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়