চাঁদপুর, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯, ২৯ সফর ১৪৪৪  |   ৩২ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ চেয়ারম্যানের প্রার্থিতা প্রত্যাহার
  •   হাইমচরে বজ্রপাতে নৌকা থেকে পড়ে জেলে নিঁঁখোজ
  •   চাঁদপুরে চুরি হওয়া ৪২ মোবাইল উদ্ধার
  •   ফরিদগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
  •   টাকার বিনিময়ে নকল সরবরাহ করেন শিক্ষকরা!

প্রকাশ : ০২ আগস্ট ২০২২, ২০:১০

মতলব উত্তরে এফএফএস মাঠ দিবস

ফসল আবাদে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাড়ছে ফলন : উপ-পরিচালক

ফসল আবাদে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাড়ছে ফলন : উপ-পরিচালক
মাহবুব আলম লাভলু

মতলব উত্তর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্প আওতায় নিরাপদ সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যে এফএফএস মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২ আগষ্ট) বিকেলে পূর্ব হানিরপাড় অলি উল্লাহ মেম্বারের বাড়ির সামনের মাঠে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, চাঁদপুরের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. জালাল উদ্দিন।

মতলব উত্তর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো. মজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম সজীব, মো. নজরুল ইসলাম,সালমা আক্তার, ফরহাদ হোসেন, আল আমিন, শাহাদাত হোসেন, সালা উদ্দিন মিয়াজী ও কৃষক শাহজাহান কবির প্রমুখ।

প্রধান অতিথি চাঁদপুরের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক জালাল উদ্দিন বলেন, কৃষকের বাড়ির আঙিনায় চাষ হচ্ছে বিষমুক্ত সবজি। লালন-পালন করা হচ্ছে গবাদি পশু ও হাঁস-মুরগি। ফলমূলের গাছ লাগানোর মাধ্যমে জোগান হচ্ছে পুষ্টির। পতিত পুকুর-জলাশয়ে মাছ চাষ করে মিলছে আমিষ। ফসল আবাদে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে বাড়ছে ফলন। এতে কৃষক পরিবারের পুষ্টি ও পরিবেশ উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে আসছে অর্থনৈতিক স্বাবলম্বিতা। কৃষক মাঠ স্কুলে কৃষকদের প্রশিক্ষণ ও উদ্বুদ্ধকরণে তৃণমূলে এমন পরিবর্তনের ধারা সূচিত হয়েছে। পরিবেশ বান্ধব কৌশলের মাধ্যমে নিরাপদ ফসল উৎপাদন প্রকল্প এর আইপিএম মাধ্যমে ১২ সপ্তাহ মেয়াদি কৃষক মাঠ স্কুলের কার্যক্রম শেষে অনেক এলাকার কৃষকরা নিজেরাই আবার গড়ে তুলেছেন আইপিএম। যেখানে কৃষকরা একত্রে বসে আবাদ ও ফসলের সমস্যা, সম্ভাবনা নিয়ে আলাপ-আলোচনা করেন। নিজেদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য পাওয়ার জন্যও নানা মতের মিলন ঘটান। নিজেরা সংগঠিত হতে চেষ্টা করছেন।

জালাল উদ্দিন বলেছেন, কৃষকরাই দেশের অর্থনীতির চাবিকাঠি। তাঁরা কঠোর পরিশ্রম করে ফসল উৎপাদন করে, দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বর্তমান সরকার কৃষক বান্ধব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, সবজি ফসলে সম্মিলিত বালাই ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিষ মুক্ত তরকারি উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য কৃষকদের কাজ করার আহ্বান জানান।

মতলব উত্তর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে স্থাপিত এসব আইপিএম কৃষক মাঠ স্কুল তৃণমূলের কৃষকদের সচেতন ও সংগঠিত করতে ভূমিকা রাখছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়