চাঁদপুর, রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ জিলকদ ১৪৪৩  |   ৩১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   বৃহৎ র‌্যালি আল-আমিন একাডেমি ও চেয়ারম্যান সেলিম খানের
  •   পদ্মা সেতুর থিম সং-এর গীতিকার কবির বকুলকে শিক্ষামন্ত্রীর অভিনন্দন
  •   হাইমচরে পানিতে ডুবে শিশুর করুণ মৃত্যু
  •   শনিবার চাঁদপুরে পাঁচজনের করোনা শনাক্ত
  •   মতলব উত্তরে নৌকাডুবি ॥ নিখোঁজ ১

প্রকাশ : ২৬ এপ্রিল ২০২২, ০০:০০

সুশিক্ষিত ও বিসিএস ক্যাডার হতে চাই
অনলাইন ডেস্ক

মেধাবী শিক্ষার্থী নূরজাহান মিলা। পড়ালেখার পাশাপাশি নিয়মিত ক্রীড়াচর্চায় অংশ নেন তিনি। বিদ্যালয়ের হয়ে ইতিমধ্যে তিনি টেবিল টেনিস, হ্যান্ডবল ও ভলিবল খেলায় উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছেন।

মোঃ মহসিন পাটোয়ারী ও ফাতেমা আক্তার দম্পতির কন্যা নূরজাহান মিলা বর্তমানে দশম শ্রেণিতে পড়াশোনা করছেন বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমিতে। তার লক্ষ্য পড়াশোনা করে একজন ভালো মানুষ হয়ে দেশে সেবায় আত্মনিয়োগ করা। সম্প্রতি এই মেধাবী শিক্ষার্থী ‘শিক্ষাঙ্গনে’র মুখোমুখি হন।

চাঁদপুর কণ্ঠ : কেমন আছেন?

নূরজাহান মিলা : আলহামদুলিল্লাহ মহান আল্লাহর রহমতে বেশ ভালো আছি।

চাঁদপুর কণ্ঠ : আপনার বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে কিছু বলুন।

নূরজাহান মিলা : আমি খুব গর্বিত এমন একটি বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করতে পেরে। এখানে পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলা ও অন্যান্য সহ-শিক্ষা কার্যক্রমের যে সুযোগ রয়েছে তা কিন্তু অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে নেই। সেই দিক থেকে আমরা খুব ভাগ্যবান। আসলে আমাদের প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বলে শেষ করা যাবে না।

চাঁদপুর কণ্ঠ : কোন্ কোন্ খেলাধুলায় আপনি অংশগ্রহণ করেন?

নূরজাহান মিলা : আমি টেবিল টেনিস, হ্যান্ডবল ও ভলিবল খেলায় অংশগ্রহণ করি।

চাঁদপুর কণ্ঠ : ক্রীড়াচর্চার জন্যে কে কে আপনাকে অনুপ্রাণিত করে?

নূরজাহান মিলা : অনুপ্রেরণার জন্যে পরিবার তো আছেই, পাশাপাশি শিক্ষক ও সহপাঠীরাও অনেক অনুপ্রেরণা যোগায়।

চাঁদপুর কণ্ঠ : আপনার প্রিয় খেলোয়াড় কারা?

নূরজাহান মিলা : টেবিল টেনিসে চায়নার গধ খড়হম খুব প্রিয়। আর হ্যান্ডবলে বাংলাদেশের গঐ অশধংয ও ভলিবলে সূচনা পারভীন।

চাঁদপুর কণ্ঠ : অভিভাবকরা আপনার ক্রীড়াচর্চাকে কীভাবে দেখেন?

নূরজাহান মিলা : অবশ্যই তাঁরা খুব খুশি আমার খেলা নিয়ে। তাদের কাছ থেকেই সবচেয়ে বেশি সাপোর্ট পাই।

চাঁদপুর কণ্ঠ : ক্রীড়াচর্চার ক্ষেত্রে বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে কী কী সহযোগিতা পান?

নূরজাহান মিলা : প্রতিষ্ঠান থেকে আমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হয়। খেলাধুলার জন্যে প্রয়োজনীয় সকল সরঞ্জাম আমরা পেয়ে থাকি। তাছাড়া শিক্ষকদের নিবিড় তত্ত্বাবধানে আমাদের নিয়মিত অনুশীলন করানো হয়।

চাঁদপুর কণ্ঠ : আপনার ভবিষ্যৎ লক্ষ্য কী?

নূরজাহান মিলা : সুশিক্ষিত ও বিসিএস ক্যাডার হতে চাই।

চাঁদপুর কণ্ঠ : আর কী কী সুবিধা পেলে ক্রীড়াক্ষেত্রে আরো সাফল্য অর্জন করতে পারবেন?

নূরজাহান মিলা : মূলত খেলাধুলায় পারদর্শী শিক্ষকরা আমাদের অনুশীলন করায় তার পাশাপাশি একজন দক্ষ কোচ দ্বারা অনুশীলন করালে ভালো ফলাফল করতে পারবো, ইনশাআল্লাহ। আর খেলার সরঞ্জামগুলোর মান আরও উন্নত হলে আরও ভালো ফলাফল হবে এবং খেলোয়াড়দেরও খেলায় আগ্রহ বাড়বে।

চাঁদপুর কণ্ঠ : ক্রীড়াক্ষেত্রে আপনার অর্জনগুলো বলুন?

নূরজাহান মিলা : ২০১৯ সালে টেবিল টেনিসে কুমিল্লা উপ-অঞ্চলে চ্যাম্পিয়ন এবং সিলেট বকুল অঞ্চলে রানারআপ, ভলিবল ও হ্যান্ডবলে চাঁদপুর জেলায় রানারআপ। ২০২০ সালে একই টেবিল-টেনিসে কুমিল্লা উপ-অঞ্চলে চ্যাম্পিয়ন, ভলিবল খেলায় কুমিল্লা উপ-অঞ্চলে রানারআপ। পরবর্তীতে করোনা প্রকোপ কাটিয়ে ২০২২ সালের ৫০তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় টেবিল-টেনিসে সিলেট বকুল অঞ্চলে রানারআপ।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়