চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  |   ৩৩ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হাজীগঞ্জের শিশু আরাফ হত্যায় তিন আসামীর মৃত্যুদণ্ড
  •   কল্যাণপুর ইউপির জেলে চাল আত্মসাৎ, দুই গুদাম সিলগালা
  •   মা আর স্ত্রীকে বুঝিয়ে দেয়া হলো দুই ভাইয়ের লাশ
  •   বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভিম ধ্বসে ৩ ছাত্রী গুরুতর আহত
  •   আশিকাটিতে খাটের নিচে গৃহবধূর লাশ ॥ স্বামী পলাতক

প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০

আনিস ফারদীন-এর কবিতা
অনলাইন ডেস্ক

এক বিকেলের ভালোবাসা আমাদের দুজনকে পাশে বসাবে

চোখে থাকবে চোখ, হৃদয়ে হৃদয়

জীবনের সব মানে পাবে পূর্ণতা,

উদ্বেলিত হবে হৃদয়ের ভাষা।

জুঁই, টগর, চামেলি নাম না জানাÑসব ফুল ফোটে স্বাগত জানাবে আমাদের,

আমরা ভালোবেসে যাবো নির্দ্বিধায়

আকাশে-বাতাসে অনুরক্তির গান হবে, প্রেম হবে।

বিশ্বাসের নিক্তি পাবে দারুণ আবহ, ধোঁয়া উঠা কফিতে চুমুকে চুমুকে কাটবে সময়,

আহ্লাদী নয়নে তাকাবো দুজন দুজনের পানে।

হাতে রবে হাত, জীবনের সাথে জীবন গেথে নকশিকাঁথার মতো সাজাবো পথচলাÑ

ভালোবেসে ভালোবাসাকে আগলে রাখবো দুজন।

যে ভালোবাসা হবে আজন্ম অপাপবিদ্ধ, পবিত্র

যে ভালোবাসা স্বর্গের সিঁড়ি বেয়ে নিয়ে যাবে শাশ্বত এক মহাসুখের বন্দরে,

পুনঃজন্মের দিকে, শাশ্বত চিরন্তন জীবনে।

যেখানে থরে থরে কৃষ্ণচূড়া ফোটে থাকে, কোকিলেরা গান ধরে মধুর সুরে

বৃষ্টি ঝরে মহাসুখে,

এমন এক ভালোবাসার জন্ম হবে, যা নিয়ে যাবে জন্মের সীমা ছাড়িয়ে জন্মান্তরে

যে ভালোবাসা পৃথিবীর মানুষের বহুল প্রত্যাশিত!

***

এই দেশ আমার স্বজন

এই দেশ আমার স্বজন, পরম আত্মীয়, আমার মা

যেখানে বিলে-ঝিলে ফোটে থাকে শাপলা শালুকÑ

কদম ফুলের গন্ধ মাতোয়ারা করে দেয় ঘ্রাণে, ব্যাকুল হয়ে উঠে মন।

যেখানে সহাস্য হাসি হাসে হিজল বন,

শরতের কাশফুল দিগন্ত ছেয়ে ফেলে;

যেখানে কৃষ্ণচূড়া ফোটে থাকে থরে থরে।

কার্তিকের নতুন ধানের মন মাতানো গন্ধ পাগল করে তোলে মন, চারদিকে লাগে উৎসবের ঢেউ,

আসে নতুন ছন্দ, আনন্দ।

বৈশাখের মেলা, যেখানে আবালবৃদ্ধবনিতা একসুরে গান তোলে,

বাচ্চারা কিনে খই, মুড়ি, বাঁশি আর হরেক রকম খেলনা;

বাদ্যের তালে তালে মনে লাগে দোলা।

বর্ষার টুপটাপ বৃষ্টির ধারা মনে সঞ্চার করে

প্রেম প্রেম খেলাÑ

শীতের পিঠেপুলি আর মায়ের হাতের খেজুর রসের ফিরনি

বসন্তের কোকিলের কুহু কুহু গান ভরিয়ে দেয় মন।

উত্তাল নদীতে পাল তোলা ডিঙ্গি নৌকার বহর সাহসের অমীয় বাণী নিয়ে ছুটে,

হলদে সরিষা ফুলে ছেয়ে থাকে মাঠের পর মাঠ যেনো বিস্তৃতিজুড়ে;

উত্তরের জনপদে ভীড়ে মায়ার আবেশ

বিশাল সারি সারি পাহাড় দাঁড়িয়ে থাকে দক্ষিণের বিশাল সীমানাজুড়ে।

সমুদ্র, প্রাণে সঞ্চার করে নতুন গতি, জীবনকে প্রতি ভোরে করে তোলে আহ্লাদিত;

সমতট ভূমিতে বাড়ে মানুষের কোলাহল

প্রমত্তা পদ্মা, মেঘনা, যমুনার বিশাল জলরাশি সব পাপ ধুয়ে-মুছে পবিত্র করে তোলে জনপদ।

ম্যানগ্রোভ বনের রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হালুম ডাকে এক নতুন সত্তার আবাহন জাগে,

বৈচিত্র্যর আবহে আমার স্বজন, বাংলাদেশ এক স্বর্গের সুষমা খণ্ড যেনো!

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়