চাঁদপুর, শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মহররম ১৪৪৪  |   ৩১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   উদাসীনতা আর কাকে বলে!
  •   ইবাদত ও খেলাফতের মধ্যেই মুসলমানদের শ্রেষ্ঠত্ব নিহিত
  •   আগামী প্রজন্মকে নির্মাণে এ ধরনের অনুষ্ঠানের কোনো বিকল্প নেই
  •   পীর বাদশা মিয়া রোডে ড্রেন ও সড়ক নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন মেয়র জিল্লুর রহমান জুয়েল
  •   এলজিইডি চাঁদপুরের সাড়ে ১০ হাজার তালগাছের বীজ রোপণ

প্রকাশ : ১১ জুন ২০২২, ০০:০০

জান্নাতুল নাঈমের কবিতা
অনলাইন ডেস্ক

তোমার শূন্যতা

সমস্ত কথা ফুলের মতো ঝরে যায়

সমস্ত ডাক নিঃশব্দে থেকে যায়

এই যে তুমি কতোটা নিকটে,

অনেকটা নদীর কাছের আকাশের মতোই,

যার কাছেই গেলেই দূরত্ব ক্রমশ বাড়ে।

সেই কবে দুজনা অভিমানে বসে আছি

তুমি প্রচণ্ড অভিমানে জীবনজুড়ে আগুন ঝরালে,

সেই থেকে আমি সব কথা হারিয়ে তোমার শূন্যতায় আছি

এখন ভালোবাসা জাগলে আমি উড়িয়ে দিই

এখন তোমাকে ডাকতে ইচ্ছে হলে আমি ফিরে না তাকাই।

তবু তোমার মতো কেউই মনে বয়না

তবু তোমায় ছাড়া মন কাউকেই চায় না

প্রথম ভালোবাসার জীবন্ত বাস্তবতার স্মৃতি কেবলই তুমি,

তাই তো আমি তোমার কাছে অমন করে ফিরি

যেমন করে পাখিরা ঝড়ের পরও ভেজা ঘরে ফিরে।

যে কথা আমি থামিয়ে এতোটা সুখী হয়ে থাকি

সেই কথারা রোজ রোজ সমুদ্র হয়ে উত্তাল হয়ে উঠে

তবু আমি সব কথা আটকে দিই,

তোমাকে ভুলতে গিয়ে কতো কি করে যাই

তবু সব মুখে তুমি ভেসে উঠো

তারপর আমি ভালোবাসা ভাসিয়ে দেখি জলে তোমায় ছায়া।

*

ভালোবাসার সংসার

ভালোবাসার তীব্র অভাবে যখন আমি রিক্ত

ঠিক তখনি জীবনজুড়ে আপনার আগমন

প্রায়শ অফিস থেকে ফিরেই রাগে টইটুম্বুর থাকেন

আমি তখন ভীতু কণ্ঠে বলি শরবত দিই?

আপনি পলকহীনভাবে বলে উঠেন এটাও কি বলতে হয়!

আমি একগাল হেসে বলি আচ্ছা দিচ্ছি।

ভালোবাসার তীব্র অভাবে যখন আমি একা

ঠিক তখন আমরা একসাথে চিরকাল থাকার সন্ধি করলাম

অফিসে যখন আপনি ভীষণ ক্লান্ত,

তখন একটা কল করে বলেন,

এই তুমি কী করছো?

আমি একগাল হেসে বলি এই তো আপনার জন্যে আজ কলমি শাক আর ডাল রান্না করছি

তখন আপনি ক্লান্ত শরীরে শান্ত গলায় বলো বাহ্ ভিটামিনসমৃদ্ধ খাবার তো।

ভালোবাসার তীব্র অভাবে যখন আমি আঁখি সেচে নিয়েছি

ঠিক তখন আমরা অর্ধাঙ্গ-অর্ধাঙ্গিণী হিসেবে পরিচিত হলাম

আমি যখন বলি এই দেখেন তো কি রোদ!

আজ না হয় সুতি শার্ট পরেন

আপনি তখন ভালোবেসে মুচকি হেসে বলেন শার্টটা কুচকে আছে,

ইস্ত্রি করে দাও

আমি চোখে মুখে হেসে বলি আচ্ছা দিচ্ছি

আপনি বরং বিশ্রাম নেন।

* পাঠক ফোরাম বিভাগে লেখা পাঠানোর ঠিকানা : pathok.ck@gmail.com

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়