চাঁদপুর, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ২ জিলহজ ১৪৪৩  |   ২৯ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরের সাবেক এসপি কৃষ্ণ পদ রায় সিএমপির কমিশনার
  •   চাঁদপুরের রোটার‌্যাক্ট ক্লাবগুলোর জিরো আওয়ার সেলিব্রেশন প্রোগ্রাম
  •   চাঁদপুর পৌরসভার অর্থায়নে একটা ব্লাড ব্যাংক করবো
  •   বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হচ্ছে
  •   রোটারিয়ানগণ সেবামূলক যে মহৎ কার্যক্রম করছেন তা সত্যিই অনুকরণীয়

প্রকাশ : ২৫ মে ২০২২, ০০:০০

ফুটবলে মধ্যমাঠের একজন ভালো খেলোয়াড় হতে চাই
অনলাইন ডেস্ক

যে এলাকাতে থেকে বসবাস করছে সে এলাকা থেকে মাত্র ক’মিনিটের পথ হাঁটলেই চাঁদপুর স্টেডিয়াম। আর পড়াশোনাও করছে স্টেডিয়ামের নিকটবর্তী তালতলার পীর মহসিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। মাঠে অনুশীলনের সময় যতোটুকু বেঁধে দেয়া হয় ততোটুকু সময়ের পুরোটাই অনুশীলনকারী কোচের দেয়া মতো সকল কিছুই মেনে চলতে দেখা গেছে তাকে। প্রমীলা ফুটবলার হিসেবে খেলার মাঠে মধ্যমাঠের একজন ভালো ফুটবলার হওয়াই তার মূল লক্ষ্য। অনুশীলনের মাঠে নিয়মিত আসার চেষ্টা করে। স্কুল ছুটি হলে এবং খেলার সময় মাঠে থাকার চেষ্টা করে। সে হলো প্রমীলা ফুটবলার মৌসুমী আক্তার। তার বাবার নাম মোবারক হোসেন। পেশায় একজন ডেকোরেটরের কর্মচারী। মা নিলুফা বেগম একজন গৃহিণী। ২ ভাই ২ বোনের মধ্যে সে শুধুমাত্র খেলাধুলার সাথে জড়িত। তারা বসবাস করে চাঁদপুর শহরের তালতলা এলাকার গাজী বাড়িতে। পড়াশোনা করছে পীর মহসিন পৌর বালিকা বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীতে। ক্রীড়াকণ্ঠের প্রতিবেদক চৌধুরী ইয়াসিন ইকরামের সাথে আলাপকালে সে বলে, আমি চাঁদপুর সোনালী অতীত ক্লাবের মাধ্যমে আজ একবছরের মতো অনুশীলন করে যাচ্ছি। আমাদের এলাকার জাহাঙ্গীর কাকার কাছে খেলা শিখতে আসলে তিনি আমাকে ভর্তি করিয়ে দেন। আমি নিয়মিত মাঠে এসে অনুশীলন করছি। আমি ফুটবলে ভালো কিছু শিখে দর্শকদের ভালো খেলা উপহার দিতে চাই। ফুটবল কোচ মানিক কাকাও আমাদেরকে খেলার ব্যাপারে উৎসাহ দেন।

মৌসুমী যেনো ভালো প্রমীলা ফুটবলার হতে পারে এবং ফুটবল অনুশীলনে যেনো ক্রীড়া সংগঠকদের পৃষ্ঠপোষকতা পায় সে জন্যে সকলের দোয়া ও সহযোগিতা চেয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়