চাঁদপুর, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯, ১১ রজব ১৪৪৪  |   ১৭ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় রিয়া হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন
  •   কোস্টগার্ডের অভিযানে চাঁদপুর কোর্ট স্টেশনে ১৩শ’ কেজি জাটকা জব্দ
  •   ডাঃ সাজেদা পলিন নড়াইলের সিভিল সার্জন
  •   মতলবের আনন্দবাজারে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচটি দোকান পুড়ে ২৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি
  •   ভাষার মাসের প্রথমদিনে বাংলায় রায় দিলেন হাইকোর্ট

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০

বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি ও ফুটবল বানিয়েছেন কৃষ্ণা সাহা
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম ॥

নিজে একসময় ফুটবল খেলতেন। পুরাণবাজার ভাই ভাই স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে খেলেছেন চাঁদপুর জেলাসহ বিভিন্ন জেলাতে। তিনি ওই ক্লাবের একজন প্রতিষ্ঠাতা সদস্যও। খেলা ছেড়ে দিলেও পুরাণবাজার নিতাইগঞ্জ এলাকার লায়ন্স ক্লাবসহ বিভিন্ন ক্লাবের উঠতি বয়সী খেলোয়াড়দেরকে খেলায় উৎসাহসহ বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। একজন ফুটবলপ্রেমী হিসেবে পুরাণবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে তাকে এক নামেই চিনে। তিনি হলেন পুরাণবাজার নিতাইগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ী ও সাবেক ফুটবলার কৃষ্ণা সাহা। তার বাবা প্রয়াত নারায়ণ চন্দ্র সাহাও একজন ফুটবলার ছিলেন। তিনি খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী ছিলেন। কৃষ্ণা সাহার বাবা আর্জেন্টিনার সমর্থক ছিলেন। বাবার সেই দলকে সমর্থন তার ছেলেও করে যাচ্ছেন।

বিশ্বকাপ ফুটবল আসলেই তিনি তার প্রিয় দল আর্জেন্টিনার পতাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ক্রীড়ামোদী দর্শকদের তার দলের খেলা দেখানোর জন্য টিভির পর্দার স্ক্রীনসহ খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করেন। আর মাত্র ১২ দিন পরেই শুরু হচ্ছে ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল। এই ফুটবলে অংশ নিয়েছে বিশ্বের ৩২টি দেশের ৩২টি দল। ২০ নভেম্বর থেকে কাতারে শুরু হচ্ছে এই বিশ্বকাপ ফুটবল। ওইদিন রাত ১০টায় কাতার ও ইকুয়েডরের ম্যাচ দিয়ে এবারের পর্দা উঠবে। তার দল আর্জেন্টিনার খেলা ২২ নভেম্বর বিকেল ৪টায় সৌদি আরবের সাথে শুরু হবে। কিন্তু কৃষ্ণা সাহা বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগেই পুরাণবাজারের নিতাইগঞ্জ এলাকার তার দোকানে আর্জেন্টিনার পতাকার ন্যায় রং করিয়েছেন। দর্শকদের খেলা দেখা ও দর্শকদের উৎসাহ দেয়ার জন্যে ইতোমধ্যে সকল কিছুই ব্যবস্থা করে রেখেছেন।

কৃষ্ণা সাহা নিজের অর্থায়নে রড ও সিমেন্ট দিয়ে বৃহদাকার ফুটবল ও বিশ্বকাপ ট্রফি বানিয়েছেন নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ছাদের উপর। নিজেই ফুটবলের ও ট্রফির রং করিয়েছেন বিশ্বকাপ ফুটবল ও ট্রফির আদলে। প্রতিদিনই স্থানীয় লোকজন তার হাতে বানানো বৃহদাকার ফুটবল ও ট্রফি দেখতে তার দোকানের সামনে ভীড় জমাচ্ছেন। তিনিও ফুটবল খেলা উপলক্ষে সকলকে উৎসাহ দিচ্ছেন।

ক্রীড়া কণ্ঠের এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে কৃষ্ণা সাহা বলেন, আমার বাবাও আর্জেন্টিনার সমর্থক ছিলেন। আমিও ছোটকাল থেকে ফুটবল খেলার পাশাপাশি আর্জেন্টিনার সমর্থক। আমি নিজেই রড ও সিমেন্ট দিয়ে এগুলো বানিয়েছি। আমি ফুটবলকে ভালোবাসি, আর্জেন্টিনাকে ভালোবাসি, সবসময় ফুটবলকে নিয়েই বাঁচতে চাই।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়