চাঁদপুর, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ২ জিলহজ ১৪৪৩  |   ৩৪ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরের সাবেক এসপি কৃষ্ণ পদ রায় সিএমপির কমিশনার
  •   চাঁদপুরের রোটার‌্যাক্ট ক্লাবগুলোর জিরো আওয়ার সেলিব্রেশন প্রোগ্রাম
  •   চাঁদপুর পৌরসভার অর্থায়নে একটা ব্লাড ব্যাংক করবো
  •   বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হচ্ছে
  •   রোটারিয়ানগণ সেবামূলক যে মহৎ কার্যক্রম করছেন তা সত্যিই অনুকরণীয়

প্রকাশ : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ০০:৪০

মৃত মায়ের পাশে দুই শিশুর কয়েক দিন

শান্ত থাকুন, মা ঘুমাচ্ছেন

অনলাইন ডেস্ক
শান্ত থাকুন, মা ঘুমাচ্ছেন
প্রতীকী

পাঁচ ও সাত বছর বয়সী দুই বোন মায়ের সঙ্গে থাকত ফ্রান্সের উত্তর–পশ্চিমাঞ্চলের একটি বাসায়। হঠাৎ একদিন তাদের মায়ের মৃত্যু হয়। কিন্তু অবুঝ শিশু দুটি ভেবেছিল, তাদের মা হয়তো ঘুমাচ্ছেন। এই ভেবেই কয়েক দিন তারা মায়ের মরদেহের পাশে কাটিয়ে দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ তাদের মায়ের মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনার কথা শনিবার ফ্রান্সের বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন স্থানীয় একজন সরকারি কৌঁসুলি।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, আঞ্চলিক সরকারি কৌঁসুলির কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, টানা কয়েক দিন অনুপস্থিত থাকায় শিশু দুটির স্কুল থেকে পুলিশকে তাদের বিষয়ে জানানো হয়। খবর পেয়ে গত বুধবার যখন পুলিশ লো মানস শহরের ওই ফ্ল্যাটে যায়, তখনো দুই বোন ভেবে বসেছিল যে তাদের মা ঘুমাচ্ছেন। তাই পুলিশ কর্মকর্তাদের দেখার পরই দুই বোন বলে ওঠে, ‘শান্ত থাকুন, মা ঘুমাচ্ছে।’

এরপর পুলিশ সদস্যরা ভেতরে ঢুকে তাদের মায়ের মরদেহ উদ্ধার করেন। ওই নারীর জন্ম ১৯৯০ সালে আইভরি কোস্টে। মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তে জানা গেছে, স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে তাঁর। মায়ের মরদেহ উদ্ধারের পর মেয়ে দুটিকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে নেওয়া হয় শিশু লালন কেন্দ্রে। মানসিক ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে তাদের ‘কাউন্সেলিং’ সেবা দেওয়া হচ্ছে।

আঞ্চলিক সরকারি কৌঁসুলি ডেলফিনে ডেওয়াইলি এএফপিকে বলেন, ‘অপরাধমূলক কিছু থেকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে আমরা মনে করছি না। আমরা আরও কয়েক দিন অপেক্ষা করব। তারপর ছোট ওই দুই শিশুর কাছ থেকে প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে জবানবন্দি নেব।’ শিশু দুটি কত দিন তাদের মৃত মায়ের পাশে কাটিয়ে দিয়েছে, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়