চাঁদপুর, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩  |   ২২ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার নিজেই ব্যালটে সিল মারতে থাকেন

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪১

হাজীগঞ্জের পূজামন্ডপে হামলায় জামায়াত নেতা আব্বাসী‘র স্বীকারোক্তি

কামরুজ্জামান টুটুল
হাজীগঞ্জের পূজামন্ডপে হামলায় জামায়াত নেতা আব্বাসী‘র স্বীকারোক্তি

গত ১৩ অক্টোরব হাজীগঞ্জ বাজারের একটি পূজামন্ডপের হামলার ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার হাজীগঞ্জ থেকে আটক করা হয় জামায়াতনেতা ও মাদ্রাসা শিক্ষক কামালউদ্দিন আব্বাসীকে। বৃহস্পতিবার তাকে চাঁদপুরের আদালতে তোলা হলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্ধী দেন কামাল উদ্দিন আব্বাসী। একইদিন (২১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় চাঁদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ কামাল হোসাইন এর আদালতে এই জবানবন্দি প্রদান করেন ।

গত ১৩ অক্টোবর রাতে মিছিল থেকে হাজীগঞ্জ বাজারের শ্রী শ্রী রাজা লক্ষী নারায়ন জিউর আখড়ায় হামলার ঘটনা ঘটে। সেই হামলার বেশ কিছু ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ। সেই ভিডিওতে জামায়াত নেতা কামাল উদ্দিন আব্বাসীকে দেখা গেছে ও মন্দিরে হামলায় নেতৃত্ব দেয়া দেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। আব্বাসী জেলার শাহরাস্তি উপজেলার ভোলদিঘী ফাযিল মাদরাসার আরবী শিক্ষক। এ ছাড়াও উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি ও বর্তমানে জামায়াতনেতা।

এ বিষয়ে হ্জাীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশিদ জানান, আব্বাসী বৃহস্পতিবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। ১৩ তারিখে হাজীগঞ্জ বাজারের পূজা মন্ডপে হামলার সময়ের ভিডিও ফুটেজে তাকে দেখা গেছে। উল্লেখ্য ১৩ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে হাজীগঞ্জ বাজারে একটি মন্দিরে হামলা করে একদল দুর্বৃত্ত। ওই ঘটনায় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করলে হামলাকারীদের সঙ্গে সংর্ঘষ হয়। এতে সবমিলিয়ে ৫ জন মারা গেছে। একই দিন রাতে বিভিন্নস্থানে বেশ কয়েটি পূজা মন্ডপসহ হিন্দু বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে।

এই সকল হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ২টি ও ক্ষতিগ্রস্থদের পক্ষ থেকে ৮টি মিলিয়ে মোট ১০ টি মামলা দায়ের করা হয়। ১০টি মামলায় প্রায় সাড়ে ৩ হাজার আসামী করা হয়েছে। এর মধ্যে কামাল উদ্দিন আব্বাসীসহ ২৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়