চাঁদপুর, সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯, ২৯ সফর ১৪৪৪  |   ৩৩ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের ভাটরায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড
  •   চাঁদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ চেয়ারম্যান পদে ওচমান হাজীর মোবাইল, জাকির প্রধানিয়ার আনারস
  •   চাঁদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ চেয়ারম্যানের প্রার্থিতা প্রত্যাহার
  •   হাইমচরে বজ্রপাতে নৌকা থেকে পড়ে জেলে নিঁঁখোজ
  •   চাঁদপুরে চুরি হওয়া ৪২ মোবাইল উদ্ধার

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৯:২৮

পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি বাদে দেশ যেকোনো সময়ের তুলনায় অনেক ভালো : ডাঃ দীপু মনি এমপি

অনলাইন ডেস্ক
পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি বাদে দেশ যেকোনো সময়ের তুলনায় অনেক ভালো : ডাঃ দীপু মনি এমপি

পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির ফলে সীমিত আয়ের মানুষের কষ্ট হচ্ছে, এটি বাদ দিলে বাংলাদেশ যেকোনো সময়ের তুলনায় অনেক ভালো আছে বলে দাবি করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। রোববার (১৪ আগস্ট) বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাস্তায় লাইট জ্বলা অবস্থায় বিরোধীরা দেশে হারিকেন নিয়ে মিছিল করে। এটি প্রতারণা ছাড়া আর কিছুই না। যাদের সময়ে বিদ্যুৎ আসার অপেক্ষা করা লাগত, বিদ্যুতের কারণে দেশের অর্থনীতি পর্যবসিত হয়ে গিয়েছিল, তারা আজ বিদ্যুৎ নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা উন্নত হয়েছি, লোডশেডিং না থাকায় এখন ১/২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকলে আমাদের খারাপ লাগে। এটি বৈশ্বিক সমস্যা, তাই সবাইকে এটি মানিয়ে নিতে হবে। সমস্যার সমাধান শিগগিরই হবে।

মন্ত্রী বলেন, দেশে আজ গণতন্ত্রের নামে মঞ্চ করা হচ্ছে। এসব গণতন্ত্র মঞ্চ হলো ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখার মঞ্চ। কারণ তারা দেশের মানুষের জন্য কিছু করেনি। গত নির্বাচনে তারা ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখছেন ক্ষমতায় যাওয়ার। এসব মঞ্চ যারা করে তাদের অনেকে ‌‘মায়ে তাড়ানো বাপে খেদানো’ মানুষ।

তিনি বলেন, পঁচাত্তরের আগে যেমন দেশে নানা সংকট ও অরাজক পরিস্থিতি তৈরি করা হয়েছিল সেই অবস্থা তৈরির চক্রান্ত হচ্ছে দেশে। অরাজক পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করা হলে তাদেরকে রাস্তায় ও রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করবে আওয়ামী লীগ।

দীপু মনি বলেন, ঘাতকেরা মুজিবের ন্যায় মুজিবের রক্তকেও ভয় পায়। পঁচাত্তরের ঘাতকরা তাই মুজিবকে নির্বংশ করতে চেয়েছিল কিন্তু তারা তা পারেনি। পঁচাত্তরের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করতে তারা ৪৭ বছর ধরে চেষ্টা করছে। যে কারণে শেখ হাসিনাকে ২১ বার হত্যার চেষ্টা করেছে।

বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কলামিস্ট ও সিনিয়র সাংবাদিক বিভুরঞ্জন সরকার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মিল্টন বিশ্বাস।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আতিকুল ইসলাম, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. আবদুর রশীদ ও বাংলাদেশ প্রগতিশীল কলামিস্ট ফোরামের সহ-সভাপতি অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়