চাঁদপুর, সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মহররম ১৪৪৪  |   ৩১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   মন্ত্রীদের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্যে ‘ফুঁসছে’ আওয়ামী লীগ
  •   নিস্তেজ হচ্ছে ডলার, দর কমেছে প্রায় ৮ টাকা
  •   ১৪০০ লিটার চোরাই ডিজেলসহ আটক ১
  •   ,হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কলেজ শিক্ষকের উপর হামলা
  •   ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকা নিহত!

প্রকাশ : ০২ জুন ২০২২, ০০:০০

সাহিত্য একাডেমী, চাঁদপুর সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন

কাজী শাহাদাত

সাহিত্য একাডেমী, চাঁদপুর সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন
অনলাইন ডেস্ক

(পূর্ব প্রকাশিতের পর)

॥ দুই ॥

নবপর্যায়ের সাহিত্য আড্ডার সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদন

দীর্ঘদিন অচলাবস্থায় সাহিত্য একাডেমী, চাঁদপুর ঝিমিয়ে পড়ার পর সাহিত্যপ্রেমীদের তৎপরতায় এবং চাঁদপুরের তৎকালীন জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে নির্বাচনের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠিত হয়। নতুন কমিটির মহাপরিচালকের দায়িত্ব নিয়ে জনাব কাজী শাহাদাত চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির যোগদানকারী কালচারাল অফিসার ও কবি জনাব আবু ছালেহ্ মোঃ আব্দুল্লাহর (কবি নামণ্ডসৌম্য সালেক) সহযোগিতায় মাসিক সাহিত্য আড্ডার সূচনা করেন। প্রতি ইংরেজি মাসের শেষ বুধবার গ্রীষ্মকালে বিকেল পাঁচটায় এবং শীতকালে বিকেল চারটায় সাহিত্য আড্ডা শুরু হয়। প্রতি মাসের সাহিত্য আড্ডার প্রাক্কালে চাঁদপুরের সকল স্থানীয় পত্রিকায় ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে আগ্রহীদের জানিয়ে দেয়া হয়।

প্রথম মাসিক সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত হয় ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি বুধবার এবং সর্বশেষ সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত হয় ২০২১ সালের ২২ ডিসেম্বর বুধবার। এভাবে নবপর্যায়ের মোট ৭৭টি সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তারপর করোনা মহামারির কারণে সাহিত্য আড্ডা স্থগিত হয়ে যায়।

পঞ্চাশতম সাহিত্য আড্ডা উদ্‌যাপন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয় ৪ মার্চ ২০১৮ তারিখে। নবপর্যায়ের সাহিত্য আড্ডায় কমপক্ষে একবার হলেও উপস্থিত ছিলেন এমন সাহিত্য অনুরাগীর সংখ্যা স্বাক্ষর-রেকর্ড অনুযায়ী ৩৪০ জন। চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক জনাব আব্দুস সবুর মন্ডল (২০১৫-২০১৮), জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ মাজেদুর রহমান খান (২০১৮-২০২১), জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ (২০২১-২২), স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর সরকারি কলেজের তৎকালীন অধ্যক্ষ ড. এএসএম দেলওয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও ছোটগল্পকার জনাব মঈনুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব আশরাফুজ্জামান বিভিন্ন সময়ে সাহিত্য আড্ডায় উপস্থিত থেকে আড্ডাকে সমৃদ্ধ করেছেন। রমজান মাসের সাহিত্য আড্ডায় সাহিত্য চর্চার পাশাপাশি ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। মধুমাসে বিভিন্ন দেশি ফল এবং শীতে পিঠাপুলির মাধ্যমে সাহিত্য-আড্ডারুদের আপ্যায়িত করা হয়। এতে কবি-সাহিত্যিক-প্রাবন্ধিকের সৃজনশস্য পাঠ করার পাশাপাশি চুলচেরা বিশ্লেষণে গঠনমূলক আলোচনা করা হয়। মাঝে মাঝে নতুন বই ও লিটলম্যাগের মোড়ক উন্মোচনও সম্পন্ন হয়। সাহিত্য চর্চার ফাঁকে ফাঁকে আবৃত্তি ও গান পরিবেশিত হয়, যা বৈচিত্র্য আনয়ন করে। অনেক আড্ডা প্রয়াত বরেণ্য কবিদের সম্মানে উৎসর্গ করা হয় এবং তাঁদের নিয়ে আলোচনা করা হয়। সাহিত্য আড্ডায় যারা আসতেন তাদের মধ্যে রণজিৎ চন্দ্র রায়, পীযূষ কান্তি রায় চৌধুরী, অধ্যক্ষ প্রফেসর মনোহর আলী এবং প্রকৌশলী মোঃ দেলোয়ার হোসেন প্রয়াত হয়েছেন। আমরা তাঁদের বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করি।

সাহিত্য আড্ডার সাতাত্তরটি আসরে যারা একবার হলেও এসেছেন তাদের তালিকা নি¤েœ পত্রস্থ হলো। সবার নামের ডানে ব্র্যাকেটে সাহিত্য আড্ডায় তার উপস্থিতির সংখ্যা উল্লেখিত হয়েছে। এই তালিকা সবার উপস্থিতির স্বাক্ষরের তারিখ হতে প্রণীত বলে এখানে পদণ্ডপদবি কিংবা জ্যেষ্ঠতার কোনো মানদণ্ড প্রয়োগ করা হয়নি।

সাহিত্য আড্ডায় উপস্থিতির তালিকা : ১. পীযূষ কান্তি রায় চৌধুরী (৩৯) ২. সৌম্য সালেক (৪৩) ৩. প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন (২৪) ৪. মুহাম্মদ ফরিদ হাসান (৭৩) ৫. সোহরাব হোসাইন (১২) ৬. শ্যামল চন্দ্র দাস (৩) ৭. সুমন কুমার দত্ত (২২) ৮. এস এম জয়নাল আবেদীন (১০) ৯. মির্জা জাকির (৬) ১০. আসাদুল্লাহ্ কাহাফ (৪৪) ১১. দন্ত্যন ইসলাম (৫) ১২. পান্থ ফরিদ (১) ১৩. নাজিমউদ্দিন (১) ১৪. প্রফেসর মনোহর আলী (৫) ১৫. রফিকুজ্জামান রণি (৪৫) ১৬. পীযূষ কান্তি বড়ুয়া (৭১) ১৭. মহসিন মিজি (১) ১৮. আশিক বিন রহিম (৪৩) ১৯. মোরশেদা আক্তার (১) ২০. হাশিম প্রধানিয়া (১৬) ২১. গাজী কবির (৬) ২২. কাজী শাহাদাত (৬৭) ২৩. আব্দুল মালেক (১০) ২৪. হাবিবুর রহমান (১১) ২৫. ড. এ এস এম দেলওয়ার হোসেন (৩) ২৬. মাসুদ দেওয়ান (২) ২৭. তছলিম হোসেন হাওলাদার (৪৬) ২৮. ম. নূরে আলম পাটওয়ারী (১৫) ২৯. আব্দুল্লাহ্ হিল কাফী (৮) ৩০. সাইফুল ইসলাম নাবিদ (৫) ৩১. কবির হোসেন মিজি (৩২) ৩২. জয়ন্ত সেন (২) ৩৩. শিমুল চন্দ্র শীল (২) ৩৪. শ্রীকৃষ্ণ দাস (১) ৩৫. আবু ইউসুফ শিমুল (১০) ৩৬. তাফাজ্জল ইসলাম তাফু (৩৭) ৩৭. তানভীর হোসেন (২) ৩৮. আমিনুল ইসলাম (১) ৩৯. মুখলেসুর রহমান মুকুল (৫) ৪০. রাশেদ শাহরিয়ার পলাশ (৪) ৪১. সরকার তৌহিদ (১) ৪২. মোখলেসুর রহমান ভুঁইয়া (৯) ৪৩. মাহবুব আলম (১) ৪৪. মাইনুল হক তোহা (২০) ৪৫. মোঃ রোকনুজ্জামান (১) ৪৬. আবুল কাশেম শাহজাহান (১) ৪৭. ফয়সাল মৃধা (৪৬) ৪৮. ফয়জুল হক ফয়েজ (১) ৪৯. নিশাত ইসলাম (১) ৫০. সেলিমউল্যাহ (১) ৫১. কামরুল হাসান (৪) ৫২. শেখ রুবি (১) ৫৩. পারভেজ আল মাহমুদ (২) ৫৪. ইয়াসিন হোসেন সুজন (১) ৫৫. মোঃ ছিদ্দিকুর রহমান (১৭) ৫৬. অভিজিৎ দাস (১) ৫৭. আরিফ বিল্লাহ্ (৭) ৫৮. শিহাবুদ্দীন সেলিম (৩) ৫৯. সাধন সরকার (১৬) ৬০.তারেক আজিজ (১০) ৬১. রিয়াদ হোসেন (৩) ৬২. মাহফুজ সরদার (১) ৬৩. চাঁন মোঃ ফুয়াদ (১) ৬৪. আশিকুর রহমান শাকিল (১) ৬৫. আব্দুর রহমান (৫) ৬৬. মোঃ কবির হোসেন (১) ৬৭. মোঃ মকবুল হোসাইন (১) ৬৮. জীবন কানাই চক্রবর্তী (১১) ৬৯. মাইনুল ইসলাম মানিক (৩৭) ৭০. মাহমুদ আলম লিয়ন (১) ৭১. কবির হোসেন (১) ৭২. রণজিৎ চন্দ্র রায় (৩৭) ৭৩. জাহাঙ্গীর হোসেন তপাদার (২) ৭৪. মনিরুজ্জামান প্রমউখ (৩) ৭৫. আফজাল হোসেন হেলাল (২) ৭৬. মীর সাহাবুদ্দীন (১০) ৭৭. হাসানুজ্জামান (৩) ৭৮. মজিবুর রহমান মজিব (২) ৭৯. সত্যজিৎ (৩) ৮০. দেওয়ান আব্দুল বাসেত (৫) ৮১. বেলাল আহমেদ (বাঁশি) (১) ৮২. কাদের পলাশ (৩৯) ৮৩. কাজী সাইফ (১২) ৮৪. আল আমিন হাসান আলম (৩) ৮৫. কামরুল ইসলাম ইমরান (২) ৮৬. বেলাল হোসেন শেখ (১) ৮৭. সামীম আহমেদ খান (৮) ৮৮. হোসনে মোবারক আজাদ (১০) ৮৯. মোজাম্মেল হোসেন (২) ৯০. আয়েশা আক্তার রূপা (২০) ৯১. সাদিয়া আফরিন কথা (২) ৯২. ইকবাল পারভেজ (৫৮) ৯৩. কাজী মোরশেদ আলম (১০) ৯৪. শাহাদাত হোসেন শান্ত (৪) ৯৫. মুহাম্মদ রেজাউল করিম (২) ৯৬. ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী (৩) ৯৭. ডাঃ মোজাম্মেল হক পাটওয়ারী (১) ৯৮. রাজিব কুমার সাহা (৩) ৯৯. আলম পলাশ (২) ১০০. খোকন কর্মকার (১) ১০১. শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম (১) ১০২. এইচ আর রকি (২) ১০৩. হাসান জাকির (১) ১০৪. ইয়াছিন মাহমুদ আরাফাত (৩) ১০৫. আমির হোসেন (৩) ১০৬. হানিফ পারভেজ (১) ১০৭. আব্দুল মমিন (৫) ১০৮. মোঃ মনির হোসেন (১) ১০৯. শাহমুব জুয়েল (২৪) ১১০. সালমান সোহেল (১) ১১১. আবদুস সোবাহান (১) ১১২. এইচ এম আর ওয়াদুদ শরীফ (৩) ১১৩. বিএম হোসেন (১) ১১৪. ডাঃ শেখ মহসিন (১) ১১৫. মামুন অপু (২) ১১৬. মোবারক গাজী (১) ১১৭. ওমর ফারুক (৫) ১১৮. ফাতেমা (১) ১১৯. শাকিবুল ইসলাম (২৬) ১২০. জমির হোসেন জনি (২) ১২১. জাহাঙ্গীর আলম হৃদয় (১১), ১২২. কাব্য কণিকা (১) ১২৩. বীণা মজুমদার (১) ১২৪. আমির আলী চৌধুরী (২) ১২৫. নিয়াজ মোর্শেদ (৩) ১২৬. খান-ই-আজম (১২) ১২৭. সালেহীন বিপ্লব (১) ১২৮. তানভীর মারুফ (২) ১২৯. বাচ্চু মিয়া (১) ১৩০. আশরাফুজ্জামান, অতি: পুলিশ সুপার (১) ১৩১. এনিমা ইসলাম এনি(১) ১৩২. আইভি রহমান (১) ১৩৩. আব্দুল হক মোল্লা (৭) ১৩৪. আরিফ রাসেল (১) ১৩৫. আব্দুস সবুর মন্ডল, জেলা প্রশাসক (১) ১৩৬. রাসেল হাসান (২) ১৩৭. জোবায়ের আহমেদ (১) ১৩৮. ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী (৩) ১৩৯. প্রিন্স রাসেল (১) ১৪০. মোঃ হোসেন আহমেদ প্লেটো (৫) ১৪১. আবু বকর বিন ফারুক (১) ১৪২. ফারুক চৌধুরী (১) ১৪৩. এ এ বিল্লাল (৩) ১৪৪. মিথিলা রহমান (১) ১৪৫.ফাতেমাতুজ জোহরা (১) ১৪৬. ফারজানা পারভীন (১) ১৪৭. রওশন আক্তার (৩) ১৪৮. মাহমুদা খানম (৬) ১৪৯. নাদিয়া রওশন (১) ১৫০. মেহেদী হাসান (১০) ১৫১. আলিজা হোসেন (২৪) ১৫২. রিফাত প্রধান (৩) ১৫৩. মুক্তা পীযূষ (২৯) ১৫৪. তাছলিমা মুন্নী (১) ১৫৫. তাসনুভা রহমান তন্নী (১) ১৫৬. নূরজাহান সেতু (১) ১৫৭. আবু সুফিয়ান (২) ১৫৮. শচীন ভট্টাচার্য (১) ১৫৯. উজ্জ্বল হোসাইন (১) ১৬০. বিপুল চক্রবর্তী (১) ১৬১. রাজন চন্দ্র দে (২) ১৬২. তানজিল আহমেদ (৬) ১৬৩. হোসাইন মিলন (১৫) ১৬৪. স্বপন ভঞ্জ (৮) ১৬৫. ইয়াছিন দেওয়ান (১৫) ১৬৬. মকবুল হামিদ (১) ১৬৭. আনিস আরমান (৭) ১৬৮. মুহাম্মদ সালাহ্উদ্দীন (২০) ১৬৯. ফেরারী প্রিন্স (১৭) ১৭০. আব্দুল হামিদ (১) ১৭১. সালাউদ্দিন মাহমুদ (২) ১৭২. জাহিদ নয়ন (৫) ১৭৩. হাসানুল কবীর (৭) ১৭৪. সাইদুল ইসলাম (১) ১৭৫. মারিয়া ফারজানা (১০) ১৭৬. মনির হোসেন অমি (১) ১৭৭. নাজমা আক্তার (১) ১৭৮. আসমা আক্তার (২) ১৭৯. শওকত হোসেন (১) ১৮০. মনিরুজ্জামান বাবলু (৫) ১৮১. শরীফ উল্লাহ (১) ১৮২. মিরাজ মুন্সী (১) ১৮৩. শাহাবুদ্দিন সরদার শিহাব (১) ১৮৪. সাজ্জাদ হোসাইন রিপন (১) ১৮৫. মানসুর আহমদ (১) ১৮৬. জান্নাতুল মাওয়া (১) ১৮৭. আরিফ হোসেন (৩) ১৮৮. আঃ হান্নান (১) ১৮৯. সুলতানা আক্তার (১) ১৯০. কাশফিয়া কাফী (১) ১৯১. তাশফিয়া তাফী (১) ১৯২. অজিত দত্ত (৫) ১৯৩. তপন সরকার (১) ১৯৪. তৃপ্তি সাহা (২) ১৯৫. শৈবাল মজুমদার (১) ১৯৬. আখতারুজ্জামান দীপু (৪) ১৯৭. প্রখর পীযূষ (২) ১৯৮. এইচ এম জাকির (১২) ১৯৯. আব্দুর রাজ্জাক (১০) ২০০. জাবের ইরন সিদ্দিক (১) ২০১. নেয়ামত উল্লাহ্ (১) ২০২. মোঃ মাজেদুর রহমান খান, জেলা প্রশাসক (১) ২০৩. জাহাঙ্গীর হোসেন (৮) ২০৪. মাহবুব আলম (১) ২০৫. আবু সালেহ (১) ২০৬. আবদুর রহমান গাজী (১) ২০৭. আবদুল্লাহ আল নোমান (১) ২০৮. কাজী আজিজুল হাকিম (১) ২০৯. খাইরুল আলম জনি (১) ২১০. রাসেল ইব্রাহিম (১) ২১১. ইউসুফ সর্দার (২) ২১২. বিল্লাল ঢালী (১) ২১৩. কাউছার আলম (২) ২১৪. কাজী মাজহারুল হক (১) ২১৫. এএইচএম আহসানউল্লাহ (৩) ২১৬. সোহাঈদ খান জিয়া (১) ২১৭. মাহবুবুর রহমান সুমন (১) ২১৮. শিশির কুমার সরকার (১) ২১৯. বাদল মজুমদার (১) ২২০. কে এম মাসুদ (১) ২২১. নিহার রঞ্জন হালদার (১) ২২২. নিঝুম খান (১০) ২২৩. মঈনুদ্দীন লিটন ভূঁইয়া (১) ২২৪. গৌতম রায় চৌধুরী (১) ২২৫. মাসুম বেপারী (১) ২২৬. মোহাম্মদ সাইদুজ্জামান (৫) ২২৭. পারভেজ কায়সার (১) ২২৮. ফাতেমা আক্তার শিল্পী (১০) ২২৯. আমিনুল হক (১) ২৩০. মোঃ লিটন (১) ২৩১. আজিজুর রহমান লিপন (৮) ২৩২. সকিনা আক্তার (১) ২৩৩. মাইনুদ্দীন মাইন (১) ২৩৪. রেজাউল করিম শামীম (১) ২৩৫. আর ওয়াদুদ রানা (১) ২৩৬. নূরুল ইসলাম ফরহাদ (৫) ২৩৭. মামুন পাটওয়ারী (১) ২৩৮. প্রত্ন পীযূষ (১) ২৩৯. ইমরান নাহিদ (৫) ২৪০. শামীম হাসান (১) ২৪১. সাবের হোসাইন (১) ২৪২. প্রফেসর বিলকিস আজিজ (১) ২৪৩. রূপালী চম্পক (১) ২৪৪. মিঠুন বিশ্বাস (১) ২৪৫. বর্ণ চক্রবর্তী (১) ২৪৬. নিলয় দাস (১) ২৪৭. নিবিড় দাস (১) ২৪৮. খায়রুজ্জামান (১) ২৪৯. আবু বকর সিদ্দিক (২) ২৫০. আছিয়া আক্তার মিথিলা (১) ২৫১. শান্ত সূত্রধর (১) ২৫২. মোঃ আবু সায়েম (২) ২৫৩. ছলিম হোসেন (১) ২৫৪. খায়রুল আলম (১) ২৫৫. আরশাদুজ্জামান খান (৫) ২৫৬. ফারুক সুমন (১) ২৫৭. রিদওয়ানুল আরেফিন সিয়াম (১) ২৫৮. আবু মুসা (১) ২৫৯. বীরেন সাহা (১) ২৬০. মঈনুল হাসান, অতিঃ জেলা প্রশাসক (১) ২৬১. আকরামুল ইসলাম (১) ২৬২. লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর (১) ২৬৩. জামশেদুর রহমান (১) ২৬৪. রুবিনা মরিয়ম (১) ২৬৫. মীরা রায় চৌধুরী (১) ২৬৬. মোঃ আকরাম (১) ২৬৭. রহিমা বেগম (১) ২৬৮. সুফি খায়রুল আলম খোকন (১) ২৬৯. ওমর ফারুক শুভ (১) ২৭০. তাইফা আহমেদ তোফা (১) ২৭১. তাসপিয়া আক্তার (১) ২৭২. সৈয়দ আয়াজ মাবুদ (১) ২৭৩. ইফতেখারুল আলম মাসুম (১) ২৭৪. মোরশেদ খান জয় (১) ২৭৫. জনি চন্দ্র দাস (১) ২৭৬. শেখ মহিউদ্দীন রাসেল (১) ২৭৭. মাহমুদ হাসান খান (১) ২৭৮. প্রাণকৃষ্ণ দেবনাথ (১) ২৭৯. রিফাত হোসাইন রাজা (১) ২৮০. সামিয়া তাসনিম (১) ২৮১. ফজলে রাব্বী (১) ২৮২. শায়েস্তা খান রাসেল (১) ২৮৩. মাহবুবুর রহমান সেলিম (৪) ২৮৪. মফিজউদ্দিন সরকার (১) ২৮৫. ওয়ালিদ হোসেন (১) ২৮৬. হাসান মাহাদি (১) ২৮৭. ছায়া পোদ্দার (১) ২৮৮. সামিয়া আক্তার কলি (১) ২৮৯. সুমাইয়া রহমান সুখী (১) ২৯০. সাদিয়া রহমান (১) ২৯১. আদিবা তাসনিম (১) ২৯২. সাহেদ হোসেন (২) ২৯৩. মিতু আক্তার (১) ২৯৪. মাহমুদা সাথী (১) ২৯৫. পরেশ সাহা (১) ২৯৬. মোহাম্মদ হাছান (১) ২৯৭. বিল্লাল হোসেন (১) ২৯৮. মেহেদি হাছান (১) ২৯৯. ফয়েজ আহমদ (১) ৩০০. কাউছার দেওয়ান (১) ৩০১. সেলিনা আক্তার (১) ৩০২. মুহাম্মদ আলমগীর (১) ৩০৩. মোঃ সালাউদ্দিন মিজি (১) ৩০৪. মোঃ সাইফুল ইসলাম (১) ৩০৫. নূরুন্নাহার মুন্নী (১) ৩০৬. আল আমিন হোসেন (২) ৩০৭. আব্দুল্লাহ আল আমিন (১) ৩০৮. মাহমুদুল হাসান (১) ৩০৯. পারভেজ মাহমুদ খান (১) ৩১০. অঞ্জনা খান মজলিশ, জেলা প্রশাসক (১), ৩১১. কাজী নাছির (১), ৩১২. নুসরাত জাহান সামিয়া (১) ৩১৩. অপরাজিতা মজুমদার (১) ৩১৪. রূপা শূর (১) ৩১৫. অথৈ দত্ত (১), ৩১৬ সুব্রত দত্ত (১), ৩১৭. মোঃ তানভীর হোসেন (১) ৩১৮. শাহানা আক্তার (১), ৩১৯. খন্দকার ফয়সাল রহমান (সাব্বির)-(১), ৩২০. নাসরিন আক্তার (নওশিন) (১) ৩২১. মিতু আক্তার (১), ৩২২. রুবিনা মরিয়ম (১) ৩২৩. সাবরিনা ইয়াসমিন নুহা (১) ৩২৪. শ্যামা সরকার মুন (১) ৩২৫. নুরুন্নাহার নিশি (১) ৩২৬. পলাশ দে (১) ৩২৭. সৈকত অধিকারী (১) ৩২৮. সায়মা আক্তার (১) ৩২৯. নাজমুছ সাকিব রিশাদ (১) ৩৩০. তাওসীফ ওমর রীমম (১) ৩৩১. আশিক ইকবাল (১) ৩৩২. সামিয়া আহাদ (১), ৩৩৩. নওশিন সাবহা (১) ৩৩৪. সামিয়া (১) ৩৩৫. সানজিদা আক্তার ইভা (১) ৩৩৬. সাবিহা আক্তার ইতি (১) ৩৩৭. হাফজা আক্তার লামিয়া (১) ৩৩৮. মাহফুজা আক্তার (১) ৩৩৯. ফাতেমা ইয়াছমিন (১) ৩৪০. শামীমা আক্তার (১)

সাহিত্য একাডেমীর প্রকাশনা

শতমাল্লার জলতরঙ্গ। সম্পাদনা : অধ্যাপক জাকির হোসেন মজুমদার। প্রকাশকাল : নভেম্বর ১৯৮৬। সাহিত্য একাডেমী পত্রিকা। সম্পাদনা : মুখলেসুর রহমান মুকুল। প্রকাশকাল : ১৯৮৮-১৯৯০। উছল ১ম সংখ্যা। সম্পাদনা : সৌম্য সালেক। প্রকাশকাল : এপ্রিল ২০১৫। উছল বিশেষ সংখ্যা (চাঁদপুর সাহিত্য সম্মেলন-২০১৭ স্মারক) সম্পাদনা : সৌম্য সালেক। প্রকাশকাল : মে ২০১৭। সুবর্ণ-শতক (মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী স্মারক)। সম্পাদনা : পীযূষ কান্তি বড়ুয়া ও মুহাম্মদ ফরিদ হাসান। প্রকাশকাল : আগস্ট ২০২১। ঋতুশ্রী (নবান্ন উৎসব উপলক্ষে সাহিত্য সংকলন) সম্পাদনা : ম. নূরে আলম পাটওয়ারী। প্রকাশকাল : নভেম্বর ২০২১।

সাহিত্য একাডেমীর তহবিল

প্রতিষ্ঠালগ্নে সভাপতি হিসেবে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের অনুদানের পাশাপাশি চাঁদপুর জেলার কিছু সিনেমা হলের টিকেটের ওপর ধার্যকৃত লেভীর অর্থ দিয়ে চলতো একাডেমীর কার্যক্রম। এতে একজন অফিস সহকারী ও নৈশপ্রহরী কাম অফিস সহায়কের মাসিক বেতন পরিশোধ ছাড়া সাহিত্য চর্চা ও উন্নয়নের জন্যে উল্লেখযোগ্য কোনো কাজ করা সম্ভব হতো না। সিনেমা হলগুলোতে দর্শক সংখ্যা ক্রমশ হ্রাস পেলে লসের সম্মুখীন হয়ে হলগুলো একের পর এক বন্ধ হয়ে যেতে থাকলে সাহিত্য একাডেমীর আয়ের প্রধান উৎস বন্ধ হয়ে যায়। মাসের পর মাস বেতন বকেয়া পড়তে থাকে কর্মচারীদের। সেজন্যে তারা দায়িত্বপালনে অনাগ্রহী হয়ে পড়ে খণ্ডকালীন অন্য কাজ করার প্রতি ঝুঁকে পড়ে। যার ফলে সাহিত্য একাডেমীটি তালাবদ্ধ হয়ে পড়ে থাকতো সারাদিন। এক নৈশপ্রহরী গরু-ছাগল-হাঁস-মুরগী পালন করে এবং তার স্ত্রী গৃহকর্মীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতে থাকে। অনাহারে অর্ধাহারে রোগে শোকে ভুগে এ নৈশপ্রহরীর মৃত্যু হলে তার স্থলাভিষিক্ত নৈশপ্রহরী বেতন না পেয়ে সাহিত্য একাডেমীতে তালা লাগিয়ে অটোবাইক কিংবা সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। এমতাবস্থায় সাহিত্য একাডেমী প্রাঙ্গণ গরু-ছাগলের চারণ ভূমিতে পরিণত হয়, যার ছবি সংবাদপত্রে ছাপাও হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয় স্থানীয় লেখক/সাহিত্যিক সমাজ। এ করুণ পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলা প্রশাসক প্রিয়তোষ সাহা সাহিত্য একাডেমীর নামে লটারী ছাড়েন। এ লটারীর টিকেট বিক্রি পূর্বক প্রয়োজনীয় তহবিল সংগ্রহ করে কর্মচারীদের বকেয়া বেতনের কিয়দংশ পরিশোধ, একাডেমী ভবন সংস্কার এবং ভবনের উত্তর পাশে পরিত্যক্ত জায়গায় আয়বর্ধক প্রকল্প হিসেবে গাড়ির গ্যারেজ নির্মাণের ব্যবস্থা করেন। কিন্তু তাতেও অর্থ সঙ্কুলান না হওয়ায় তিনি কিছু প্রভাবশালী গাড়ির মালিক থেকে ২ বছরের অগ্রিম ভাড়া নেন। তবুও গ্যারেজ নির্মাণে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ঋণ রেখে চাঁদপুর থেকে বদলি হয়ে চলে যান।

তারপর জেলা প্রশাসক হিসেবে মোঃ ইসমাইল হোসেন সাহিত্য একাডেমীর তহবিল সংগ্রহে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের সহযোগিতা নেন এবং সে সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয় সাহিত্য একাডেমী পুরস্কার প্রতিযোগিতা। উদ্বৃত্ত অর্থ থেকে কর্মচারীদের বকেয়া বেতনের কিয়দংশ এবং গ্যারেজ নির্মাণে একাডেমীর পরিচালক অজয় ভৌমিকের ঋণ পরিশোধ করেন। তিনি বদলি হয়ে চলে গেলে জেলা প্রশাসক আব্দুস সবুর মন্ডলের সময়ে গ্যারেজের আয়ে একাডেমীর কর্মচারীদের বেতন পরিশোধে সমস্যা তৈরি হয়। প্রভাবশালী গাড়ির মালিকরা ভাড়া পরিশোধে গড়িমসি শুরু করলে একাডেমীর নৈশ প্রহরী কাম অফিস সহায়কের বেতন বকেয়া পড়ে এবং চাকুরি ছেড়ে একের পর এক তারা চলে যেতে থাকে। কিন্তু অফিস সহকারী মাসুদ দেওয়ান বকেয়া বেতন সত্ত্বেও তার চাকুরি চালিয়ে যান। এরই মধ্যে বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় লাখ টাকা। জেলা প্রশাসক এ ব্যাপারে সহযোগিতা না করলেও সাহিত্য একাডেমীর সাহিত্য সম্মেলনসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে ও প্রকাশনায় আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন। ২০১৮ সালের মার্চ মাসে তাঁর বদলির পর জেলা প্রশাসক মাজেদুর রহমান খান একাডেমীর সভাপতির দায়িত্বে এসে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ, গ্যারেজের পরিবর্তে গোডাউন নির্মাণের অনুমতি দেন। এছাড়া পাণ্ডুলিপি পুরস্কার, সেমিনার আয়োজনসহ মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ‘সুবর্ণ-শতক’ প্রকাশসহ অন্যান্য কর্মসূচিতে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। বর্তমানে হল রুম ও গোডাউনের ভাড়ার আয়েই সাহিত্য একাডেমীর কর্মচারীদের বেতন, বিদ্যুৎ বিলসহ আনুষঙ্গিক ব্যয় মিটানোর বিষয়টি স্বাভাবিক পর্যায়ে আসে। তাঁর বিদায়ে ২০২১ সালের ৩ জানুয়ারি জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ সাহিত্য একাডেমীর সভাপতি হিসেবে একাডেমীর প্রকাশনা ‘ঋতুশ্রী’, নবান্ন উৎসব, দেয়ালিকা প্রতিযোগিতা, ‘সুবর্ণ-শতকে’র পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠানসহ অন্যান্য কর্মসূচিতে আর্থিক অনুদান প্রদান করেন। এছাড়া তিনি একাডেমীর ভবন সংস্কারেও এক লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেন।

সাহিত্য একাডেমীর বর্তমানে উল্লেখযোগ্য আর্থিক সঙ্কট নেই। গোডাউন ভাড়া বাবদ মাসিক পাওয়া যায় ১০ হাজার টাকা, হল ভাড়া বাবদ পাওয়া যায় আরো ক’ হাজার টাকা। চাঁদপুর সিটি ব্যাংকে তিন লাখ টাকার স্থায়ী আমানত লাভসহ বেড়ে বর্তমানে ৯ লাখ ১৪ হাজার ৮৬৩ টাকা এবং অগ্রণী ব্যাংক নতুনবাজার শাখায় আরেকটি ১ লাখ টাকার স্থায়ী আমানত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৬৯ টাকা। সর্বসাকুল্য সাহিত্য একাডেমীর প্রায় ১১ লাখ টাকার স্থায়ী আমানত রয়েছে। (চলবে)

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়