রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩  |   ৩১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হাইমচরে শীতকালীন সবজির বাম্পার ফলন, দামে অসন্তুষ্ট কৃষক : সবজি ক্ষেতে সবুজ হাসি থাকলেও কৃষকের মুখ ম্লান
  •   অশুভ শক্তি শক্তিশালী হলেও জয়ি হতে পারবে না : শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি

প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫১

হাসপাতালে ১২ জনঃ এক কুকুরের কামড়ে

অনলাইন ডেস্ক
হাসপাতালে ১২ জনঃ এক কুকুরের কামড়ে

তিন গ্রামের পাঁচ শিশুসহ অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন কুমিল্লার দেবিদ্বারে এক কুকুরের কামড়ে।ওই কুকুরটিকে স্থানীয়রা একত্রিত হয়ে বাঁশ-লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। কুকুরের কামড়ে গুরুতর আহতরা হলেন- এলাহাবাদ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের ইমরান (৭), রেহানা বেগম (৩৮), ফজিলাতুন্নেছা (৩০), সীমা আক্তার (২৮), খাদিজা বেগম (৪০), মোহনপুর ইউনিয়নের তানভীর (১০), ছোটনা গ্রামের সালমা (২০), কুরুইন গ্রামের ফাহিম হাসান (৯) রিশাদ (১২) জাকিয়া (৬) ও নারগিস (৫০)।

আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে দ্রুত কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকরা তার পরিচয় জানতে পারেননি ।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকালে একটি পাগলা কুকুর উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামে ঢুকে সামনে যাকে পেয়েছে তাকে কামড়ে আহত করেছে। এর আগের দিন কুরুইন গ্রামেও কুকুরটি একাধিক বাড়িতে ঢুকে অনেককে কামড়িয়েছে। এরপর পার্শ্ববর্তী ছোটনা গ্রামে গিয়ে কামড়াতে থাকে, আহতদের মধ্যে নারী, পুরুষ ও শিশু রয়েছেন। এ ঘটনায় আহত পাঁচ জনকে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ছয় জনকে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত শিশু ইমরানের বাবা মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ছেলে মুখে কামড় দিয়ে গালের মাংস তুলে ফেলেছে। পাগলা কুকুরটি সামনে যাকে পেয়েছে তাকেই কামড়িয়েছে। ভয়ে-আতঙ্কে মানুষ ঘরের দরজা বন্ধ করে রাখেন।’

আহত সিমা আক্তার বলেন, ‘কুকুরটি সামনে এসে লাফ দিয়ে আমার নাকে কামড় দিয়েছে। এলাকার চারদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় কেউ সাহস করে সামনে আসেনি।’

দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল কর্মকর্তা ডা. মাহবুবা আলম জানান, পাগলা কুকুরটি আহতদের নাকে, মুখে ও গালে কামড়িয়েছে। হাসপাতালে কুকুরে কামড়ানোর ওষুধ অ্যান্টি র‌্যাবিস ভ্যাকসিন নেই। আহত পাঁচ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘পাগলা কুকুরটি অনেক মানুষকে কামড়িয়েছে। স্থানীয়রা সবাই পিটিয়ে কুকুরটিকে মেরে ফেলেছে।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবীর বলেন, ‘গুরুতর আহত একজনের নাম পরিচয় জানা যায়নি। কুকুরটি লাফিয়ে লাফিয়ে সবার মুখে নাকে কামড়িয়েছে। আহতদের মধ্যে পাঁচ জনকে দেবিদ্বার ও সাত জনকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়