চাঁদপুর, রবিবার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুর ডায়াবেটিক সমিতির ৭ম বার্ষিক সাধারণ সভা
  •   ইভিএম’র ভুল ধরতে পারলে ১০ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার
  •   মতলব দক্ষিণে মাদক বিক্রিতে বাধা দেয়ায় ছেলেকে না পেয়ে বাবাকে মারধর
  •   ভুয়া বিচারপতি বিপ্লব এখন কারাগারে
  •   মতলব দক্ষিণে কীটনাশক খেয়ে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

প্রকাশ : ০৬ নভেম্বর ২০২১, ১৭:৫৬

মতলব সূর্যমুখী কচি-কাঁচার মেলার ৫৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

রেদওয়ান আহমেদ জাকির
মতলব সূর্যমুখী কচি-কাঁচার মেলার ৫৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত
স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঐতিহ্যবাহী শিশু-কিশোর সংগঠন, মতলব সূর্যমুখী কচি-কাঁচার মেলার ৫৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে।
গত ৫ নভেম্বর এ উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯টায় মিনিটে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় ও মেলার পতাকা উত্তোলন করেন, মতলব সরকারি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ ও মেলার সভাপতি মাকসুদুল হক বাবলু। পরিচালনা করে প্যারেড কমান্ডার আদিল আরহাম অহন। এরপর সদস্যগণ শপথ গ্রহণ করে। শপথ পরিচালনা করে শিশু সদস্য তানজীল আহমেদ স্বপ্নীল।
পরে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন তরুন সদস্য কামরুল হাসান নিপু। মেলার সভাপতি মাকসুদুল হক বাবলুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মতলব সরকারি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রয়মনেন নেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রোটা. আফরোজা খাতুন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করে শিশু সদস্য শামসুল আলম ও গীতা পাঠ করে শিশু সদস্য লক্ষ্মী বনিক।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মেলার সহ-সভাপতি দেওয়ান রেজাউল করিম, জাকির হোসেন, প্রবীণ সদস্য ফারুক বিন জামান, নাসির আহমেদ সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াদুল আলম রিয়াদ, তরুন সদস্য এসএম সেলিম, মোস্তফা কাদরী, শাহনাজ পারভীন কাকলী, আইনুন্নাহার কাদরী, জাভেদ হাসান সিদ্দিকী, প্রাক্তন শিক্ষক ক্ষিতিশ চন্দ্র সরকার, শিক্ষক রীনা বনিক, সাংবাদিক আকতার হোসেন, আহবায়ক মাহফুজ কাদরী, শিশু সদস্য আবদুল মুনাফ ইহান প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মেলার এ শুভ দিনে আসতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। তিনি সবাইকে নিয়ে এ মেলার ভবিষ্যৎ উন্নয়নে অবদান রাখবেন বলে প্রতিশ্রæতি দেন।
বক্তব্যের পর আবৃত্তি পাঠ করে শোনায় ফাইজা ফারহিন ও গান গেয়ে শুনায় জুঁই সাহা। পরে ৪ঠা নভেম্বর আয়োজিত চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও অন্যান্য পুরষ্কার প্রদান করা হয়। সবশেষে শত শত শিশু সদস্য, অভিভাবক ও অতিথিদের কলকাকলীতে কেক কাটা উৎসব পালিত হয়েছে।
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়