বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জন আহত
  •   ট্রলারে র‍্যাবের অভিযানে প্রচুর গাঁজা জব্দ
  •   কচুয়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি
  •   হাজীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
  •   বাঘেরহাটের যুবতী ১০ কেজি গাঁজাসহ হাজীগঞ্জ গ্রেফতার

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবনের সামনে আবর্জনা!

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবনের সামনে আবর্জনা!
অনলাইন ডেস্ক

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী চলছে। আগামী ১৬ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধে বিজয় লাভের ৫০ বছর পূর্তি হবে। এ সুবর্ণজয়ন্তীকে স্মরণীয় করে রাখার লক্ষ্যে সরকার বহুমুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে নানা ধরনের দৃশ্যমান উন্নয়ন। উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, আমরা যে অকুতোভয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মরণপণ সম্মুখযুদ্ধ, গেরিলা যুদ্ধের কারণে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ নামে স্বতন্ত্র ভূখ- পেয়েছি, তাঁদের প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিটগুলোর জন্যে দৃষ্টিনন্দন বহুতল ভবন নির্মাণ। এ ভবনগুলো পর্যায়ক্রমে নির্মিত হচ্ছে এবং মন্ত্রী-এমপিদের দ্বারা উদ্বোধন করা হচ্ছে।

এইতো সেদিন উদ্বোধন করা হয়েছে চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সদ্য নির্মিত ভবন। এ ভবনটি ব্যাপক আনুষ্ঠানিকতায় উদ্বোধন করেন চাঁদপুর সদর-হাইমচর আসনের এমপি, শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। বাবুরহাটে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে খোলামেলা পরিবেশে এ ভবনটি নির্মাণ করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। সোমবার চাঁদপুর কণ্ঠের প্রথম পৃষ্ঠায় প্রকাশিত এক সচিত্র সংবাদে জানা গেছে, এ ভবনের সম্মুখস্থ সড়কের বিপরীত দিকে প্রতিনিয়ত বাবুরহাট বাজার ও আশেপাশের এলাকার গৃহস্থালির বর্জ্য ফেলা হচ্ছে। এ বর্জ্য কেউ অপসারণ না করায় সড়ক ও জনপথের খালে বাঁধের মতো সৃষ্টি হয়েছে এবং পানি চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। সবচে’ বড় কথা, উৎকট দুর্গন্ধে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবনে অবস্থান কষ্টকর হয়ে পড়েছে। চাঁদপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার আবুল কালাম চিশতী এ ব্যাপারে বাবুরহাট বাজার কর্তৃপক্ষ এবং চাঁদপুর পৌরসভার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

একটি বাজারের ব্যবসায়ীদের স্বার্থ, নিরাপত্তা, ন্যায্য অধিকার, সুবিধা-অসুবিধা ইত্যাদি দেখার পাশাপাশি ব্যবসায়ী সমিতি বা বাজার কর্তৃপক্ষকে বাজারের সুন্দর পরিবেশ রক্ষায় মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হয়। কিন্তু বাবুরহাট বাজারে এমন ভূমিকা পালনে কাউকে দেখা যায় না। অথচ চাঁদপুর পৌরসভার প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে এ বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এবং সভাপতি-সেক্রেটারী পদে যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচিত হয়। কিন্তু বাবুরহাট বাজারের এই নেতৃত্ব পদ-পদবীর পরিচয় দেয়া ছাড়া উল্লেখযোগ্য কাজ করছেন বলে মনে হয় না। সম্প্রতি এ বাজারকে নিয়ে একের পর এক প্রকাশিত সংবাদে এমন ধারণা করতে কারো অসুবিধা হয় না। এ বাজারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ কীভাবে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবনের সামনে বাজারের বর্জ্যসহ গৃহস্থালির বর্জ্য ফেলাটাকে নিতান্তই চেয়ে চেয়ে দেখছেন সেটা সচেতন কোনো মানুষের মাথায় ঢুকে না। আমরা এ নেতৃবৃন্দকে পৌরসভার সাথে নিবিড় যোগাযোগ সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়