চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৬ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   বিজয়ের মাস ডিসেম্বর শুরু
  •   হাজীগঞ্জের কিউসি টাওয়ারে আগুন :  আহত ১০ 
  •   ৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, শূন্যপদ ২৩০৯
  •   করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ
  •   চাঁদপুর শহরে বিদ্যুৎষ্পৃষ্টে এক যুবকের শরীর জ্বলসে গেছে

প্রকাশ : ০১ অক্টোবর ২০২২, ০০:০০

ফুটপাত দখলের এ চিত্র ভয়াবহ

ফুটপাত দখলের এ চিত্র ভয়াবহ
অনলাইন ডেস্ক

‘চাঁদপুর পরিক্রমা : ইতিহাস ও ঐতিহ্য’ নামক গ্রন্থ থেকে জানা যায়, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ৪৪টি বাজার রয়েছে। এ বাজারের তালিকায় সর্বাগ্রে স্থান পেয়েছে চান্দ্রা বাজার। এ বাজারটি ১ নং বালিথুবা পশ্চিম ইউনিয়নে অবস্থিত। এ বাজারটির হাটবার শনিবার ও মঙ্গলবার। এ বাজারটির প্রসিদ্ধি ব্রিটিশ আমলের চেয়ে পাকিস্তান আমলে বেশি ছড়িয়ে পড়ে ঐতিহ্যবাহী চান্দ্রা ইমাম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের কারণে। নৌপথে চতুর্মুখী যোগাযোগের কারণে এ বাজারটিতে শুধু ফরিদগঞ্জ উপজেলা নয়, চাঁদপুর সদর উপজেলার বিরাট একটি অংশ এবং হাজীগঞ্জ উপজেলার কিয়দংশের লোকজনের ব্যাপক সমাগম ঘটে। স্বাধীনতোত্তর বাংলাদেশে চাঁদপুর সেচ প্রকল্প বেড়িবাঁধের সুফলস্বরূপ এ বাজারটি চতুর্মুখী সড়ক যোগাযোগ দ্বারা সমৃদ্ধ হয়। তারপর এ বাজারটি কেবল হাটবারে নয়, সপ্তাহের প্রতিটি দিনই জমজমাট হয়ে উঠে। এর ফলে বাজারটি ফরিদগঞ্জের সীমানা ছাড়িয়ে জেলার অন্যতম প্রসিদ্ধ বাজারের স্বীকৃতি লাভ করে।

দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য, চান্দ্রা বাজারটি বর্তমানে স্বীয় প্রসিদ্ধির অনুকূলে চলছে না। গতকাল চাঁদপুর কণ্ঠের প্রথম পৃষ্ঠায় ‘চান্দ্রা বাজারে ফুটপাত দখল’ শিরোনামের সংবাদটি পড়ে পাঠকের তেমনটি মনে হয়েছে। এ সংবাদের সাথে সংযুক্ত ছবিটি দেখে কারো অনুধাবন করতে কষ্ট হয় না যে, ফুটপাত দখলের এ চিত্রটি কতোটা ভয়াবহ।

এ সংবাদটির সারাংশ হচ্ছে : চান্দ্রা বাজারের ভেতরে অলিগলিতে ঢোকার যে পথগুলো রয়েছে, সেগুলোর ফুটপাত দখল করেই এক শ্রেণীর ব্যবসায়ী অবৈধভাবে দোকান দিয়ে পথচারী ও যানবাহনের স্বাভাবিক চলাচল ব্যাহত করে চলছে। এমতাবস্থায় বাজারের ভেতরের ব্যবসায়ীদের দোকানের মালামাল নিয়ে যানবাহন ভেতরে প্রবেশ করতে না পারায় অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করে শ্রমিক দিয়ে মালামাল পরিবহন করতে হচ্ছে। ক’জন ক্রেতা চাঁদপুর কণ্ঠকে বলেছেন, আমরা আগে বাজারের ভেতর থেকে রিকশাযোগে মালামাল নিয়ে বের হতে পারতাম। এখন পায়ে হেঁটে চলাটাও কষ্টকর হয়ে পড়েছে বাজারের ফুটপাত দখল হয়ে থাকায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ক’জন বাজার ব্যবসায়ী বলেন, ফুটপাত দখল করে চান্দ্রা বাজারে দীর্ঘদিন ব্যবসা চললেও দেখার কেউ নেই। এতে ক্ষতিগ্রস্ত ও সংক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেও প্রতিকার পান নি। ফলে ফুটপাত দখলের প্রবণতা বাড়তে বাড়তে এখন পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে, দুর্ভাগ্যক্রমে এ বাজারের ভেতরে কোনো দোকানে আগুন লাগলে সেখানে খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে এসেও ফায়ার সার্ভিসের অগ্নি নির্বাপক গাড়ি পৌঁছতে পারবে না।

আমরা ফরিদগঞ্জের চান্দ্রা বাজারের প্রসিদ্ধির বিষয়টি মাথায় রেখে স্থানীয় প্রশাসনকে এ বাজারের অলিগলির সড়ক সমূহের ফুটপাতকে অবৈধ দখলমুক্ত করার ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের জোর অনুরোধ জানাতে চাই। একই সাথে বাজার কমিটি না থাকলে সে কমিটি গঠন, আর কমিটি থাকলে সে কমিটিকে শক্তিশালীকরণের কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানাতে চাই। আমরা স্থানীয় প্রশাসনকে বাজার কমিটির সহযোগিতা নিয়ে কিংবা সরাসরি বাজারটির ফুটপাত অবৈধ দখলমুক্তকরণের জন্যে জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়