চাঁদপুর, সোমবার, ৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ৯ মহররম ১৪৪৪  |   ২৯ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুরে ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ
  •   গলায় ফাঁস লাগিয়ে কিশোরের আত্মহত্যা
  •   জমি খারিজের নামে হাতিয়ে নিলেন বিপুল পরিমাণ টাকা
  •   কিশোর গ্যাং গড়ে উঠার আগেই নির্মূল করতে হবে : মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম
  •   ডিবি পুলিশের অভিযানে আন্তঃ জেলা প্রতারকচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশ : ০৩ আগস্ট ২০২২, ২১:১০

উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা

কচুয়ায় ২২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা , জামিন মঞ্জুর

মোহাম্মদ মহিউদ্দিন
কচুয়ায় ২২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা , জামিন মঞ্জুর
কচুয়ায় রাজনৈতিক মামলায় জামিন মঞ্জুরের পর আইনজীবীদের সাথে বিবাদীরা।

কচুয়ায় গত সোমবার উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে কচুয়া বিশ^রোড এলাকায় ভাংচুর, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, হামলা, সংঘর্ষ ও দোকানপাট ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের ২২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মঙ্গলবার রাতে উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকার বাদী হয়ে কচুয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন, যার নং ০২, তারিখ : ০২.০৮.২০২২ খ্রিঃ।

মামলায় যুবলীগ নেতা গাজী ফারুক, উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সোহাগ উদ্দিনসহ ২২জনকে এজহার নামীয় ও অজ্ঞাত ১০-১২জনকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় বুধবার কচুয়া আমলী আদালতে বিবাদীগণ স্বেচ্ছায় হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ বিচারক নাজমুল হাসান চৌধুরী তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

বিবাদীদের পক্ষে অ্যাডঃ হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ মোঃ জহিরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, সদস্য অ্যাডঃ বদিউজ্জামান কিরন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ আহছান হাবীব, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ জসিম উদ্দিন পাটওয়ারীসহ ৫০জন আইনজীবী জামিন প্রার্থনা করেন।

বিবাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডঃ হেলাল উদ্দিন বিজ্ঞ আদালত বিবাদীদের জামিন মঞ্জুর করায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, মামলায় প্রকৃত দোষীদের বিবাদী করা উচিত ছিল। ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, যারা ঘটনাস্থলে ছিল না তাদেরকেও বিবাদী করা হয়েছে। এমনকি জননেতা ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরসহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে মিছিল নিয়ে স্বাগত জানাতে যাদের অবস্থান ঘটনাস্থল থেকে ৫শ’ গজেরও বেশি দূরে ছিল তাদেরকেও বিবাদী করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, বাদী উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকার প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে তার কমিটির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সোহাগ উদ্দিন, যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদী হাসানসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ নেতৃবৃন্দ যারা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কোনো আলামত নেই, তাদেরকেও বিবাদী করেছেন। যারা প্রকৃত দোষী তাদের বিচার হোক এটা আমিও চাই। মামলার বাদী পক্ষ তাদের ভুল বুঝতে পারবে বলে আমার বিশ^াস। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সকল পক্ষ ধৈর্যের পরিচয় দিয়ে দলীয় ঐক্য অটুট রাখার লক্ষ্যে কাজ করবেন বলে আমি আশা করছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়