শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮  |   ১২ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   বালুবাহী ট্রাক চাপায় গাড়ির হেলপার নিহত
  •   চাঁদপুর শহরে যুবকের আত্মহত্যা
  •   ফরিদগঞ্জে ৪ কেজি গাঁজাসহ দুই যুবক আটক
  •   করোনায় মৃত্যু ২০, শনাক্ত ১৫৪৪০ জন
  •   ফরিদগঞ্জে আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০

আজ চাঁদপুর মুক্ত দিবস
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট ॥

আজ ঐতিহাসিক ৮ ডিসেম্বর। স্বাধীন সোনার বাংলার ইতিহাসে আজকের দিনটি চাঁদপুরের জন্যে একটি ঐতিহাসিক এবং গৌরবোজ্জ্বল দিন। ১৯৭১ সালের এদিনে চাঁদপুর হানাদারমুক্ত হয়। এদিন চাঁদপুর শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে স্বাধীন সোনার বাংলার লাল সবুজের পতাকা পত-পত করে উড়তে থাকে। আর চাঁদপুরবাসী বিজয় উল্লাস করে। প্রতি বছর এ দিনটি স্মরণে চাঁদপুরে ব্যাপক কর্মসূচি পালিত হয়ে আসছে। এবার মূল কর্মসূচি উদ্যাপিত হবে চাঁদপুর আউটার স্টেডিয়ামে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার উদ্বোধনকে ঘিরে।

দীর্ঘ ৮ মাস পাক হানাদার বাহিনীর সাথে বাঙালি মুক্তিসেনারা যুদ্ধ করে ১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর চাঁদপুরকে শত্রুমুক্ত করে। এর আগে ৬ ডিসেম্বর থেকে ৭ ডিসেম্বর গভীর রাত পর্যন্ত হাজীগঞ্জের বলাখাল এলাকায় পাক হানাদার বাহিনীর সাথে মুক্তি বাহিনীর দীর্ঘ সম্মুখ যুদ্ধ হয়। সে যুদ্ধে পাক হানাদার বাহিনী পরাজয় বরণ করে পিছু হটতে বাধ্য হয়। তারা চাঁদপুরের ওপর দিয়ে নদী পথে পালিয়ে যায়। পলায়নরত অবস্থায় পাকিস্তানী সেনা বাহিনীর মেজর জেনারেল আব্দুর রহিম মুক্তিযোদ্ধাদের গুলিতে আহত হন। পরে মাঝ নদী থেকে হেলিকপ্টারযোগে পাকিস্তানি সৈন্যরা তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ৭ ডিসেম্বর রাতে পাক হানাদার বাহিনী চাঁদপুর থেকে পালিয়ে যায়। ৮ ডিসেম্বর সকালে মিত্র বাহিনীর ট্যাংকার লেঃ কর্নেল সুট্টির নেতৃত্বে চাঁদপুর প্রবেশ করে। ৮ ডিসেম্বর প্রথমে চাঁদপুরের তৎকালীন মহকুমা প্রশাসকের কার্যালয় প্রাঙ্গণে ও পরে চাঁদপুর সদর থানা প্রাঙ্গণে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। এভাবেই ৮ ডিসেম্বর চাঁদপুর শত্রুমুক্ত হয়ে এ দিন চাঁদপুর মুক্ত দিবস হিসেবে ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ হয়ে আছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়