চাঁদপুর, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ জিলকদ ১৪৪৩  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   রোটারী জেলায় চাঁদপুর রোটারী ক্লাবের অভাবনীয় সাফল্য অর্জন
  •   বৃহৎ র‌্যালি আল-আমিন একাডেমি ও চেয়ারম্যান সেলিম খানের
  •   পদ্মা সেতুর থিম সং-এর গীতিকার কবির বকুলকে শিক্ষামন্ত্রীর অভিনন্দন
  •   হাইমচরে পানিতে ডুবে শিশুর করুণ মৃত্যু
  •   শনিবার চাঁদপুরে পাঁচজনের করোনা শনাক্ত

প্রকাশ : ২১ মে ২০২২, ০০:০০

মতলবে ভুয়া বিচারপতি আটক
রেদওয়ান আহমেদ জাকির ॥

ঢাকা থেকে প্রাইভেটকার ভাড়া নিয়ে মতলব দক্ষিণ উপজেলায় নিজের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন বিপ্লব প্রামাণিক (৪৫)। পথিমধ্যে জাতীয় সেবা নাম্বার ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে নিজেকে বিচারপতি পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ প্রটোকলসহ অন্যান্য সুবিধা গ্রহণ করেন। অবশেষে সেই পুলিশের হাতেই ধরা পড়লেন এই ভুয়া বিচারপতি। গতকাল শুক্রবার দুপুরে মতলব পৌরসভাধীন উত্তর দিঘলদী গ্রামের শামসের আলী প্রধানীয়া বাড়ি থেকে বিচারপতি পরিচয় দেয়া বিপ্লব প্রামাণিককে আটক করে মতলব দক্ষিণ থানা পুলিশ। একই সময় তার ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটিও (ঢাকা-মেট্রো-গ-১৭-২৯১৩) জব্দ করা হয়।

এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২০ মে শুক্রবার কুমিল্লা পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে চাঁদপুর পুলিশ কন্ট্রোল রুমকে অবগত করা হয়, ঢাকা হতে বিপ্লব প্রামাণিক নামে একজন বিচারপতি কুমিল্লা সীমান্ত হয়ে চাঁদপুর প্রবেশ করবে। বিষয়টি চাঁদপুর কন্ট্রোল ডিআইও-১ মোঃ মনিরুল ইসলামকে জানালে তিনি বিচারপতি মহোদয়ের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে প্রটোকলের বিষয়ে ব্যবস্থা নেন। অতঃপর অতিদ্রুত ডিআইও-১, চাঁদপুর তা পুলিশ সুপার মোঃ মিলন মাহমুদ বিপিএম (বার) ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায়কে অবগত করেন এবং মতলব দক্ষিণ ও উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জকে জানান।

এদিকে সফরসূচী ব্যতিত চাঁদপুর জেলায় বিচারপতির আগমনের বিষয়টি পুলিশ সুপারের সন্দেহজনক মনে হলে তিনি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায়কে এ ব্যাপারে খোঁজ নিতে বলেন।

প্রাথমিকভাবে মতলব দক্ষিণ থানার এসআই (নিঃ) মোঃ রুহুল আমিন সকাল ১১টা ২০ মিনিটের সময় পুলিশ লাইন্স, চাঁদপুরের প্রটোকল গাড়িযোগে বিচারপতি পরিচয়দানকারী ব্যক্তির গাড়ি বারোঠালিয়া ব্রিজের উপর এসে থামলে গাড়িতে কোনো ধরনের পতাকা ও বডিগার্ড না থাকায় তার মনে সন্দেহ জাগে। তিনি এর কারণ জানতে চাইলে, বিচারপতি পরিচয়দানকারী বিপ্লব প্রামাণিক জানান, ব্যস্ততার কারণে সরকারি গাড়ি ও বডিগার্ড আনেন নাই। পরে ভিজিটিং কার্ড নিয়ে এসআই রুহুল আমিন বিষয়টি অতি দ্রুত ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট অবগত করেন।

তখন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) এসআই (নিঃ) মোঃ রুহুল আমিনকে নির্দেশ করেন বিচারপতি পরিচয়দানকারীর নিজ বাড়ি উত্তর দিঘলদী গ্রামে তার সম্পর্কে জানার জন্যে।

পরবর্তীতে এসআই মোঃ রুহুল আমিন জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায়, তিনি ঢাকা রায়েরবাগ এলাকার একটি ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেন। আর তখনি তার প্রতারণা ফাঁস হয় এবং সে যে ভুয়া বিচারপতি তা ধরা পড়ে।

অতঃপর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ)-এর তদন্তের প্রেক্ষিতে জানা যায়, ভুয়া বিচারপতি পরিচয়দানকারী বিপ্লব প্রামাণিকের আসল নাম মোঃ আরিফ হোসেন বিপ্লব (৪৫), মতলব দক্ষিণ উপজেলার দিঘলদী গ্রামের মৃত মাহবুব প্রধানের ছেলে। এলাকায় তার প্রভাব বিস্তারের জন্যে তিনি এ কাজটি করেন। তার বিরুদ্ধে পূর্বের দুইটি মামলায় সাজা ওয়ারেন্ট পাওয়া যায়। মতলব দক্ষিণ থানার মামলা নং-১৬, তাং- ২০/০৫/২০২২ খ্রিঃ, ধারা-১৭০ পেনাল কোড। গ্রেফতারকৃত এ আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়