শুক্রবার, ০১ জুলাই, ২০২২  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে ছাই
  •   বাংলাদেশে ঈদুল আজহা ১০ জুলাই
  •   ডাকাত সন্দেহে কোস্টগার্ডের হামলায় নিখোঁজ ১ : আহত ২
  •   হাজীগঞ্জে নবজাতকের লাশ উদ্ধার
  •   অধ্যাপক    কামরুজ্জামান সাহেবের স্মরণ সভা  ও মিলাদ

প্রকাশ : ২৩ মে ২০২২, ০০:০০

অল্পের জন্যে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল সাগরিকা এক্সপ্রেস
মিজানুর রহমান ॥

ট্রেন চলা অবস্থায় চাঁদপুর শহরের মাতৃপীঠ স্কুল মোড়ের সন্নিকটে ছায়াবাণী-নতুনবাজার ব্যস্ততম সড়কের একটি রেলগেট খোলা থাকায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে যাচ্ছিলো। রোববার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে অল্পের জন্যে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা চাঁদপুর বড় স্টেশনগামী সাগরিকা এক্সপ্রেস। ট্রেনটি মিশনরোড রেলগেট পার হয়ে ছায়াবাণী রেলগেটের কাছাকাছি আসার সময় গেট খোলা পেয়ে প্রায় অর্ধশত যানবাহন ও বহু পথচারী জটলা পাকায় রেলগেট চত্বরে। ট্রেন আসছে দেখে গেট এলাকায় লোকজন চিৎকার শুরু করেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী চাঁদপুর শহরের উত্তর শ্রীরামদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক শাহজাহান সিদ্দিকী তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেন, ট্রেন চালকের বুদ্ধিমত্তার কারণে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলো পথচারীরা। ২২ মে সকাল ৭টা ৪০ মিনিটে সাগরিকা ট্রেনটি চট্টগ্রাম থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। ট্রেনটি ১২টা ৩০ মিনিটে ছায়াবাণীস্থ রেল গেটের কাছাকাছি আসলে চালক দেখতে পায়, রেল লাইনের দুই পাশের গেট খোলা এবং পথচারীরা চলাচল করছে। চালক বুদ্ধি করে সতর্কতার উদ্দেশ্যে জোরে হুঁইসেল বাজায়। হঠাৎ হুঁইসেল শুনে পথচারীরা আতঙ্কিত হয়ে দ্রুত সটকে পড়ে। এক ফল ব্যবসায়ী জানান, গেটের কাছাকাছি দূরত্বে ট্রেনটি হুঁইসেল দিলে তিনি দোকান থেকে লাফ দিয়ে নেমে গেটের মাঝ বরাবর এসে তার দুই হাত দু দিকে মেলে ধরে পথচারীদের চলাচল গতিরোধ করার চেষ্টা করে।

এ বিষয়ে চাঁদপুর রেলওয়ে বড়স্টেশন মাস্টার মোঃ সোয়াইবুল সিকদার বলেন, সেখানকার গেটকিপার জানিয়েছেন, সাগরিকা ট্রেন আসার আগে ওই রেলগেটের দুই পাশে যানজট লেগে যায়। গেট কিপার রেলগেট বন্ধ করতে আপ্রাণ চেষ্টা করে। পরে ফ্লাগ উড়িয়ে চালককে সিগনাল দিয়ে সাবধানতার সাথে সাগরিকা ট্রেনটি ওই স্থান পার করানো হয়।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়