চাঁদপুর, রবিবার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মহররম ১৪৪৪  |   ২৯ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   পাঁচ দফা জানাজা শেষে হাজীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি সভাপতির দাফন সম্পন্ন
  •   চোর-ডাকাত আতঙ্কে কচুয়াবাসী
  •   ২ লাখ টাকার বালু পরিবহনে কোটি টাকার কার্গো ডাকাতিয়ায় ডোবার উপক্রম!
  •   গরুর গুঁতোয় ২ মোটরসাইকেল আরোহী জখম
  •   চাঁদপুর মাছঘাটে কমে গেছে ইলিশের সরবরাহ

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০২২, ০০:০০

স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ চুরির অভিযোগ
স্টাফ রিপোর্টার ॥

ফরিদগঞ্জে সড়কের পাশ থেকে বন বিভাগের ছোট-বড় ফলদণ্ডবনজসহ ১৭টি গাছ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে গোবিন্দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবির হোসেনের বিরুদ্ধে। ইতোমধ্যেই বন বিভাগ ঘটনার সত্যতা পেয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

জানা যায়, রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের গৃদকালিন্দিয়া বাজারের দক্ষিণ ডিসি সরকারি খাল ও সড়কের মাঝখানে সরকারি সম্পত্তির ওপর (পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন) থেকে প্রায় ১৭টি গাছ উধাও হয়ে যায়। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে কর্তৃপক্ষকে জানায়। তারা ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বে কেটে ফেলা গাছের অধিকাংশ বিক্রি করে সরিয়ে নেয়া হয়। আরো বেশ ক’টি গাছের নিচে কাটার চিহ্ন রয়েছে।

ঘটনা জেনে গত ৩আগস্ট বুধবার বন বিভাগের কর্মকর্তা কাউছার আহমেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওই দিন রাতেই হুমায়ুন কবির হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের বাসিন্দা হুমায়ুন কবির গোবিন্দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। তার সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে একাধিকবার মুঠোফোনে কল ও ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্লাস চলাকালীন সময় গিয়েও পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শরিফ খান বলেন, সড়কের পাশে সরকারি গাছ কাটার ঘটনা শুনে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। হুমায়ুন কবির মাস্টারকে আমি ফোনে বলেছি আমার পরিষদে আসার জন্য, কিন্তু তিনি আসেননি।

উপজেলা বন কর্মকর্তা কাউছার মিয়া জানান, সরকারি গাছ কাটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছি। প্রায় ১৭টি গাছের বাজার মূল্য ১ লাখ টাকা। শিক্ষক হুমায়ুন কবির হোসেন গাছগুলো বিক্রি করেছেন, তার বিরুদ্ধে আমি থানায় অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমুন নেছা বলেন, তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়