চাঁদপুর, শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ৩৩ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   নদীর বাতাসও যেন ঘুরে চলে যায় অন্য কোথাও
  •   শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের সুস্থতা কামনায় বিভিন্ন মসজিদে দোয়া
  •   একদিনের সফরে আজ চাঁদপুর আসছেন শিক্ষামন্ত্রী
  •   চাঁদপুরের সাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপারই এখন আইজিপি
  •   হাজীগঞ্জে মৃত বোনের চাঞ্চল্যকর ডিভোর্স জালিয়াতি

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০২২, ০০:০০

কিশোরগ্যাং গড়ে ওঠার আগেই নির্মূল করতে হবে
মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল ॥

শাহরাস্তি পৌরসভার উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বিপথগামী সেনা সদস্যদের হাতে নির্মমভাবে সপরিবারে নিহত হন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি বেঁচে থাকলে এদেশ সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে উঠতো। বর্তমানে আমরা বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা শাহরাস্তি-হাজীগঞ্জ উপজেলার উন্নয়নে পরিকল্পিতভাবে এগিয়ে যাচ্ছি। বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের কারণে বিদ্যুতের সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। ১৯৭১ সালে এদেশ স্বাধীন করার জন্যে আমরা অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের জন্যে কিছুটা কষ্ট সহ্য করতে হবে। আমরা ব্যাপক উন্নয়ন করেছি, এখন মানবসম্পদ উন্নয়নে নজর দিবো। এলাকার খালগুলো পুনঃখননের কাজ করা হবে। আমাদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, শাহরাস্তিতে কোনো কিশোর গ্যাং গড়ে উঠতে দেয়া হবে না। কিশোরগ্যাং গড়ে ওঠার আগেই নির্মূল করতে হবে। আগামী বছরের মধ্যেই অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করা হবে। আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে আগামীতে এগিয়ে যেতে চাই।

শাহরাস্তি পৌরসভার মেয়র হাজী আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে এবং কাউন্সিলর তুষার চৌধুরী রাসেলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হুমায়ূন রশীদ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান, উপজেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ ইলিয়াস মিন্টু, কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন, মুকবুল আহমেদ প্রমুখ। সভাশেষে ১৫ আগস্টে নিহতদের স্মরণে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন মুফতি মাওলানা সলিমুল্লাহ।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়