চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৬ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   বিজয়ের মাস ডিসেম্বর শুরু
  •   হাজীগঞ্জের কিউসি টাওয়ারে আগুন :  আহত ১০ 
  •   ৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ, শূন্যপদ ২৩০৯
  •   করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ
  •   চাঁদপুর শহরে বিদ্যুৎষ্পৃষ্টে এক যুবকের শরীর জ্বলসে গেছে

প্রকাশ : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০:০০

চাঁদপুর পৌরসভার নগর সমন্বয় কমিটি (টিএলসিসি)-এর সভায় মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল

আগামী তিন বছরে নির্বাচনপূর্ব সব প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করবো ইনশাল্লাহ

আগামী তিন বছরে নির্বাচনপূর্ব সব প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করবো ইনশাল্লাহ
মিজানুর রহমান ॥

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেছেন, দেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী চাঁদপুর পৌরসভা। এ পৌরসভার ১২৫ বছর পূর্তিকে সামনে রেখে এখন থেকে আমরা দৃশ্যমান ও স্থায়ী কিছু কাজে হাত দিবো। তিনি বলেন, পৌরবাসীকে দৃঢ়তার সাথে আশ্বস্ত করতে চাই, আমাদের নির্বাচনের আগে আমরা যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছি তার শতভাগ আসছে তিন বছরের মধ্যে বাস্তবায়ন করবো ইনশাল্লাহ। জনগণের জীবনমান উন্নয়নের জন্যে পৌরসভার প্রতিটি সেক্টরে আমরা কাজ করবো। ২৮ সেপ্টেম্বর বুধবার বিকেল সাড়ে তিনটায় চাঁদপুর পৌর পাঠাগারে পৌরসভার নগর সমন্বয় কমিটি(টিএলসিসি)-এর সভায় সভাপ্রধানের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, নাগরিকবৃন্দের ভাবনা-চিন্তা আমাদের পরিকল্পনা প্রণয়নে মূল শক্তি। তাদের মতামতের ভিত্তিতে এ বছরই অনেকগুলো কাজে আমরা হাত দিবো। বাইতুল আমিন মসজিদের সামনের শপথ চত্বরটি নতুন করে নান্দনিক করা হচ্ছে। ইলিশ চত্বরও সংস্কার করা হবে। শহরের দুটি লেককে পরিকল্পনা অনুযায়ী নতুন রূপে সাজাতে সহসা কাজে হাত দেবো। পুরাণবাজারে মধুসূদন স্কুল মোড়টি প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও জাতীয় নেতা মরহুম মিজানুর রহমান চৌধুরী চত্বর হিসেবে নির্মাণ করবো।

মেয়র বলেন, আমাদের পরিষদ দায়িত্ব নেয়ার পর অনেক সঙ্কটের মধ্য পড়ে। করোনা এবং এখন আর্ন্তজাতিক মন্দা। তারপরও প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কারে আমরা সফল। আমরা ব্যয়ের জায়গা সংকুচিত করে কয়েক কোটি টাকা আয় বাড়িয়েছি। বিদ্যুতের বিগত দেনা কিস্তির মাধ্যমে পরিশোধ করছি এবং রানিং বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকছে না।

তিনি বলেন, পৌর এলাকার যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, মশক নিধন, বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহসহ সকল নাগরিক সেবার মান উন্নত করতে এবং নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন নগর সমন্বয় কমিটির সদস্য ও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রোটাঃ কাজী শাহাদাত, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ এস.এম. মোস্তাফিজুর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ গোপ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী অধ্যাপিকা মাসুদা নূর খান, শহর পরিকল্পনাবিদ মোঃ সাজ্জাত ইসলাম ও ইউএনডিপি প্রকল্পের চাঁদপুর টাউন ম্যানেজার মোঃ আঃ হান্নান।

সভায় উপস্থিত ছিলেন পৌর নির্বাহী প্রকৌশলী এএইচএম সামছুদ্দোহা, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কালাম ভূঁইয়াসহ টিএলসিসি’র সদস্যবৃন্দ ও কাউন্সিলরগণ। সভা পরিচালনা করেন পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মফিজ হাওলাদার।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়