চাঁদপুর, শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪  |   ২৪ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নব-নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের সাথে এমপির মতবিনিময়
  •   খলিশাডুলীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
  •   জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩২২ জনের মৃত্যু
  •   আজ রোটারিয়ান মরহুম দেওয়ান আবুল খায়েরের ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী
  •   ফরিদগঞ্জে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্র ও মাদকসহ আটক তিন

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০

মতলব উত্তরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত যুবকেরও মৃত্যু
মাহবুব আলম লাভলু ॥

মতলব উত্তর উপজেলায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত তানভীরও চলে গেলেন না ফেরার দেশে। শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় ২ ডিসেম্বর সকাল ৯টা ৪০ মিনিটের সময় মৃত্যুবরণ করেন।

২৬ নভেম্বর মতলব উত্তর উপজেলার বাগানবাড়ি ইউনিয়নের হাফানিয়া নামক স্থানে বেড়িবাঁধের উপর ট্রলি গাড়ি আর মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ৩ জন নিহত হয় এবং তানভীর গুরুতর আহত হয়। আহত তানভীর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় গতকাল ২ ডিসেম্বর সকাল ৯টা ৪০ মিনিটের সময় মৃত্যুবরণ করেন। সেমতে উক্ত দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়।

ট্রলি গাড়ি আর মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতরা হলেন : চান্দ্রাকান্দি গ্রামের আবিদ আলীর ছেলে মোঃ সেলিম (ট্রলির হেলপার), খাগুরিয়া গ্রামের আঃ রশিদ মিয়াজীর ছেলে শান্ত (২৫), একই গ্রামের সরজান বকাউলের ছেলে মোঃ রাশেদ (২২) ও ঘটনার ৬ দিন পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় মৃত্যুবরণকারী তানভীর।

তানভীর উপজেলার বাগানবাড়ি ইউনিয়নের খাগুরিয়া গ্রামের মোঃ নাছির উদ্দীন বেপারীর ছেলে। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনিই বড়।

এছাড়া ২৫ নভেম্বর প্রায় একই সময়ে উপজেলার ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নের ভাটি রসুলপুর সংলগ্ন বেড়িবাঁধের ওপর এনায়েত নগর মোঃ মাহমুদুল হাসানের বাড়ির গেইট পার হয়ে পূর্ব দিকে সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়। এদের বাড়ি সুলতানাবাদ ইউনিয়নের দক্ষিণ টরকীতে। তারা দুজন মোটরসাইকেলে সাহেববাজার থেকে বাড়িতে আসার সময় অটোবাইকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

নিহতরা হলেন : মহসিন বেপারীর ছেলে সালাউদ্দিন (১৯) ও অপরজন রুস্তম আলীর ছেলে মোহাম্মদ হোসেন (২০)।

স্থানীয়রা মনে করছেন, লাইসেন্সবিহীন চালকরা বেপরোয়া ট্রলি ও মোটরসাইকেল চালানোর কারণে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়