চাঁদপুর, সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩  |   ২১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার নিজেই ব্যালটে সিল মারতে থাকেন

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০

চার ঘন্টা বিদ্যুৎ ছিলো না!
মোঃ আবদুর রহমান গাজী ॥

‘চাঁদপুর পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে (আমার এলাকায়) রোববার সকাল থেকে চার ঘন্টা বিদ্যুৎ ছিলো না। এভাবে প্রতিদিনই তিন-চার ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকে না। বন্ধের দিনেও লোডশেডিং! আমার মনে হয়, আমি কেনো জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ জন্যই আমার এলাকায় লোডশেডিং দেখায়। বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে ফোন দিলে তিনি কল রিসিভ করেন না। হয়তো কোনো কাজের ব্যস্ততায় ছিলেন। কিন্তু তার মোবাইলে আমার নাম্বারটা সেভ করা। তিনি পরেও কল করেননি। আমার বেলায় যদি এমন হয়, সাধারণ জনগণের কী হবে?’

জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় চাঁদপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মিজানুর রহমানের ‘চাঁদপুরে বিদ্যুৎ ভালো মতো চলছে, বর্তমানে বিদ্যুতের কোনো সমস্যা নেই’ এমন বক্তব্যের জবাবে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ উপরোক্ত কথাগুলো বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এদিকে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এ কর্মকর্তার কাছে চাঁদপুর পৌর এলাকার বিদ্যুতের কিছু উন্নয়ন কাজের কথা জানতে চেয়েছিলেন। সে বিষয়েও তিনি কোনো উত্তর পাননি। এ সময় জেলা প্রশাসক বলে উঠলেন, আজকের সভায় তো বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নেই।

উল্লেখ্য, ১৭ অক্টোবর রোববার ছিল জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়