চাঁদপুর, রবিবার, ৭ আগস্ট ২০২২, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৯, ৮ মহররম ১৪৪৪  |   ৩০ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   আমরা মানসম্মত শিক্ষা প্রত্যাশা করি
  •   বাসর রাত থেকেই নির্যাতনের শিকার পারভিন আক্তার
  •   হানারচর ইউনিয়নে মুক্তিযোদ্ধা ও অন্ধ নারীসহ ২০ জনের ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
  •   ময়না তদন্ত হচ্ছে ৪ মাসের শিশু শাহরিনের!
  •   জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা যুবদলের বিক্ষোভ

প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০

বোগদাদ-রিল্যাক্সের যুদ্ধ : চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়ক যেনো মৃত্যুকূপ

বোগদাদ-রিল্যাক্সের যুদ্ধ : চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়ক যেনো মৃত্যুকূপ
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট ॥

চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়কটিতে এখন চলছে বোগদাদ ও রিল্যাক্স বাসের মল্লযুদ্ধ। আর এ যুদ্ধের ফলে সড়কটি এখন মৃত্যুকূপে পরিণত হয়েছে। বোগদাদ ও রিল্যাক্স বাস কে কার আগে যাত্রী নিবে এ প্রতিযোগিতা দিতে গিয়ে সড়কটি যাত্রীদের কাছে আতঙ্কে পরিণত হয়েছে। তাদের এমন ভীতিকর প্রতিযোগিতা দেখে মনে হয় সড়কটি যেনো শুধু তাদেরই। এ দুই বাসের যুদ্ধংদেহী অবস্থার কারণে বাসের যাত্রীসহ এই সড়কে চলাচলকারী অন্যান্য যানবাহন এবং পথচারীরা সবসময় আতঙ্কগ্রস্ত থাকে। কখন কার প্রাণ হরণ করে নেয় বেপরোয়া বাস, সে আতঙ্কে থাকতে হয় সবসময়। গত শুক্রবার বোগদাদ বাসের চাপায় তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় মানুষ আরো বেশি আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে। ঘাতক বোগদাদ বাসের চালককে আটকের পর সে স্বীকার করেছে রিল্যাক্স বাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে তার বাস দুর্ঘটনা ঘটায়।

চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়কটি অনেকদিন যাবৎ এককভাবে দখলে রেখেছে বোগদাদ ট্রান্সপোর্টের বাস। চাঁদপুর বাসস্ট্যান্ড এবং কুমিল্লা জাঙ্গালিয়া বাসস্ট্যান্ড থেকে ২০ মিনিট পর পর বোগদাদ বাস ছাড়তো চাঁদপুর এবং কুমিল্লার উদ্দেশ্যে। চাঁদপুর থেকে সরাসরি কুমিল্লা এবং কুমিল্লা থেকে সরাসরি চাঁদপুর বাস সার্ভিস দীর্ঘকাল যাবৎ ছিল একমাত্র বোগদাদ ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস। ‘এক বনে এক রাজা’ হওয়ায় একটা সময় বোগদাদ বাসটি অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠলো। একদিকে যাত্রী সেবার মান কমে যায়, অপরদিকে অদক্ষ চালকের কারণে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটতে থাকে। সড়কে বাসের সংখ্যা বাড়তে থাকায় দক্ষ চালকের সঙ্কট দেখা দেয়। তখন অদক্ষ চালকই একমাত্র অবলম্বন হয়ে ওঠে।

দক্ষ চালকের এমন সঙ্কট অবস্থায় চাঁদপুর-কুমিল্লা রূটে রিল্যাক্স নামে আরেকটি বাস সার্ভিস চালু হয় সম্প্রতি। একটি ট্রান্সপোর্টের একক আধিপত্য রোধ করতে চাঁদপুর-কুমিল্লা রূটে আরো বাস সার্ভিস চালু সময়ের দাবি ছিলো। কিন্তু সড়কে এমন যুদ্ধ কেউ প্রত্যাশা করে নি। বলতে গেলে রিল্যাক্স ও বোগদাদ একে অপরের সাথে পাল্লা দিয়ে চলতে থাকে এই রূটে। এই পাল্লা দেয়াটাই সড়কে এখন বোগদাদ ও রিল্যাক্স বাসের মধ্যে যুদ্ধংদেহী অবস্থা। এ যুদ্ধ এক ভীতিকর এবং আতঙ্কের যুদ্ধ। এক বাস অপর বাসের সাথে পাল্লা দিয়ে চলতে থাকে। একটিকে অপরটি ওভারটেক করে নিয়ম বহির্ভূতভাবে। আবার একটি যাতে আরেকটির আগে না যেতে পারে সে জন্যে বিভিন্ন স্টপেজে সড়কের উপর বাস আড়াআড়ি করে থামিয়ে রাখে। যেনো সড়ক বন্ধ হওয়ার ফলে পেছনের বোগদাদ অথবা রিল্যাক্স বাস কাছাকাছি না আসতে পারে।

এদিকে কে কার আগে যাত্রী নেবে এ অসম প্রতিযোগিতা দিতে গিয়ে বেপরোয়া গতিতে বাস চালাতে থাকে। তাদের প্রতিযোগিতার দৃশ্য দেখে মনে হবে যেনো এ সড়কটি শুধু বোগদাদ ও রিল্যাক্সের। এভাবে বেপরোয়া গতিতে চালাতে গিয়েই তারা দুর্ঘটনা ঘটিয়ে ফেলে। এতে ঘটে প্রাণহানি। যা গত শুক্রবার ঘটেছে। গত কয়েক মাস যারা সড়ক পথে চাঁদপুর কুমিল্লা যাতায়াত করেছে, তারা বোগদাদ ও রিল্যাক্স বাসের অসম প্রতিযোগিতার যুদ্ধ দেখেছে। এই রূটের যাত্রী সাধারণ এবং পথচারীরা এর থেকে বাঁচতে চায়। চাঁদপুরের প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ কামনা করছে জেলাবাসী।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়