চাঁদপুর, রবিবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯, ১৩ রজব ১৪৪৪  |   ১৬ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   কচুয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নব-নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের সাথে এমপির মতবিনিময়
  •   খলিশাডুলীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
  •   জানুয়ারিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩২২ জনের মৃত্যু
  •   আজ রোটারিয়ান মরহুম দেওয়ান আবুল খায়েরের ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী
  •   ফরিদগঞ্জে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্র ও মাদকসহ আটক তিন

প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০২১, ০০:০০

খোকন হত্যা মামলার প্রধান আসামী দেলোয়ারকে জেলহাজতে প্রেরণ
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম ॥

চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের পশ্চিম সকদী গ্রামের ব্যবসায়ী ইকবাল মাহমুদ খোকন হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামী দেলোয়ার হোসেন দেলুকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গতকাল ৯ আগস্ট সোমবার দুপুরে চাঁদপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামাল হোসেনের আদালতে দেলোয়ার হোসেন স্বেচ্ছায় হাজির হলে আদালত তার জামিন না-মঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। পরে তাকে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। সংশ্লিষ্ট আদালত সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত ২১ জুন একই মামলার ৩ আসামীকে নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। পরে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। তারা হলেন : প্রধান আসামী দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী জোসনা বেগম (৪১), তার ছেলে মোঃ মোরছালিন (২১) ও তার পিতা মোঃ শহীদ উল্লাহ (৬৫)। এর মধ্যে জোসনা বেগম জামিনে আছেন। বাকি দুজন কারাগারে।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, হত্যার শিকার ইকবাল মাহমুদ খোকনের জেঠাত বোনদের সাথে অভিযুক্ত আসামী দেলোয়ার হোসেন গংয়ের সম্পত্তিগত বিরোধ ছিলো। ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ৩০ মে সন্ধ্যায় হঠাৎ করে মাদক ব্যবাসয়ী দেলুসহ তার সহযোগী মোঃ আঃ রশিদ, মোঃ শহিদ উল্যাহ ও মোঃ বশির উল্যাহ গং খোকনের দোকানে এসে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় এবং পেট্রোল ঢেলে দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে খোকনের শরীরের অধিকাংশ পুড়ে যায়। বাড়ির লোকজন প্রথমে তাকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতাল এবং পরবর্তীতে ওইদিন রাতেই রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ৭ জুন সকালে মৃত্যুবরণ করেন।

৮ জুন দুপুরে সকদী গ্রামের খান বাড়িতে নামাজে জানাজা শেষে ইকবাল মাহমুদ খোকনকে দাফন করা হয়। ৯ জুন তার ছেলে সোহেল খান বাদী হয়ে চাঁদপুর আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-সিআর ২৮) এবং জি আর ৩৩৫/২১। মামলায় এই পর্যন্ত একই পরিবারের ৪ জন গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে হত্যার শিকার ব্যবসায়ী খোকন পরিবারের সদস্যরা গ্রেফতার হওয়া সকল আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতের নিকট ন্যায়বিচার দাবি করেছেন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়