সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩  |   ২৭ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হাজীগঞ্জের পৃথক দুটি তদন্ত চলছে : পরিস্থিতি স্বাভাবিক : ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০

চতুরঙ্গ আয়োজিত সিনেবাজ ১৩তম ইলিশ উৎসবের প্রস্তুতিমূলক সভা
অনলাইন ডেস্ক

‘জেগে ওঠো মাটির টানে’ এ শ্লোগান নিয়ে চতুরঙ্গ সাংস্কৃতিক সংগঠন আয়োজিত সিনেবাজ ১৩তম ইলিশ উৎসব আগামী ২ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ উপলক্ষে উৎসব কমিটির সদস্যদের নিয়ে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর সাংস্কৃতিক চর্চা কেন্দ্রে এ সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন চতুরঙ্গ সাংস্কৃতিক সংগঠনের চেয়ারম্যান ও ১৩তম ইলিশ উৎসবের উপদেষ্টা অ্যাডঃ বিনয় ভূষণ মজুমদার। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আমরাসহ সারাবিশ^ প্রায় দুবছর যাবৎ অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছি। যার কারণে সাংস্কৃতিক অঙ্গনও স্থবির হয়ে পড়েছে। এই ভাইরাসের ব্যাপারে প্রত্যেককে সচেতন হতে হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এই করোনার সময় আমরা ২জন প্রাণপ্রিয় বন্ধু (মরহুম ইয়াহিয়া কিরণ ও তাহমিনা হারুন)কে হারিয়েছি।

তিনি বলেন, চতুরঙ্গ ইলিশ উৎসব এখন শুধু চাঁদপুরেই সীমাবদ্ধ নেই, এ উৎসব এখন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে গেছে। তাই এ উৎসবকে আমাদের সুন্দরভাবে চালিয়ে নিতে হবে। বর্তমানে ইলিশ উৎপাদন বাড়ছে। ইলিশ উৎপাদন বাড়ার ক্ষেত্রে এ উৎসব অনেকাংশে সহায়তা করেছে। আমাদের আগামীদিনের লক্ষ্য থাকবে এ উৎসবের মাধ্যমে জাটকা নিধন শতভাগ বন্ধ করতে পারা। চতুরঙ্গ সাংস্কৃতিক সংগঠনের মহাসচিব হারুন আল রশীদের সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বক্তব্য রাখেন সিনেবাজ ১৩তম ইলিশ উৎসবের আহ্বায়ক কাজী শাহাদাত।

হারুন আল রশিদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, কিছু কিছু মানুষ দেখলে আমরা সাহস পাই। এই উৎসবে আমরা সবাই সক্রিয় থাকবো। যেহেতু করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে এই উৎসবটি আমাদের জন্যে চ্যালেঞ্জিং হবে। তবে আমরা সবাই মিলে এ উৎসবটিকে সুন্দরভাবে চালিয়ে নিতে পারবো।

এছাড়াও আরো বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ও চতুরঙ্গ ইলিশ উৎসবের উপদেষ্টা তপন সরকার, জেলা প্রশাসন কর্তৃক গঠিত স্বেচ্ছাসেবক টিম লিডার ওমর ফারুক, জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন রাসেল, উৎসবের নবাগত আজীবন সদস্য ইমাম প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত ছিলেন চতুরঙ্গ ইলিশ উৎসবের সাংস্কৃতিক কমিটির আহ্বায়ক ইতু চক্রবর্তী, সদস্য সচিব অনিতা কর্মকার, কার্যকরী কমিটির চিত্রকলা পরিচালক মনির হোসেন মান্না, সম্প্রচার পরিচালক শাহরিয়া পলাশ, নাট্যকলা পরিচালক রাজীব চৌধুরী, সাংস্কৃতিক কমিটির পরিচালক শুভ্র রক্ষিত, নৃত্যকলা পরিচালক রাশেদুল ইসলাম রাব্বী, আব্দুল বাতেনসহ আরো অনেকে।

সভার শুরুতে চতুরঙ্গ সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মকর্তা মরহুম ইয়াহিয়া কিরণ ও তাহমিনা হারুনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও রূহের মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়