চাঁদপুর, রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩  |   ২১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ফ্যামিলি ডে অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন বছরের এ একটি দিন সাংবাদিকরা উপভোগ করেন, এদিন তাঁদের মিলনমেলা ঘটে

প্রকাশ : ০৬ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০

মতলবে কেন্দ্রীয় কচি-কাঁচার মেলার ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

মতলবে কেন্দ্রীয় কচি-কাঁচার মেলার ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন
রেদওয়ান আহমেদ জাকির ॥

সারাদেশের ন্যায় মতলব সূর্যমুখী কচি-কাঁচার মেলার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কচি-কাঁচার মেলার ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হয়েছে। ৫ অক্টোবর সকাল ১০টায় কচি-কাঁচা মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো শপথ গ্রহণ, জাতীয় পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সভায় মেলার সভাপতি মোঃ মাকসুদুল হক বাবলুর সভাপ্রধানে ও মেলার তরুণ সদস্য কচি-কাঁচা প্রি-ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফারুক আহমেদ বাদলের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিএইচএম কবির আহমেদ। বক্তব্য রাখেন মেলার সহ-সভাপতি দেওয়ান রেজাউল করিম, কচি-কাঁচা প্রি-ক্যাডেট স্কুলের সম্পাদক ফারুক বিন জামান, মেলার প্রবীণ সদস্য দিজেস দাস, তরুণ সদস্য এসএম সেলিম, গোলাম মোস্তফা কাদরী, সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার সেলিম, মেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহিনা মজুমদার রতœা, সাংবাদিক শ্যামল দাস ও মেলার শিশু সদস্য ফুয়াদ হাসান। কোরআন তেলাওয়াত করেন তরুণ সদস্য হোসেন আহমেদ এবং গীতা পাঠ করেন রীণা বণিক।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে শিশুদের সুযোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কচি-কাঁচার মেলা আন্দোলনের যথার্থ ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। মতলব মেলার মাধ্যমে এ আন্দোলন গঠনমূলক ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি মতলব মেলার সার্বিক কর্মকাণ্ডে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবেন বলে ঘোষণা প্রদান করেন।

এর আগে সকাল ৯টায় মেলা প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা ও মেলার পতাকা উত্তোলন করেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বিএইচএম কবির আহমেদ ও মেলার সভাপতি মোঃ মাকসুদুল হক বাবলু। পরে মেলার শত শত সদস্য ভাই-বোন শপথ গ্রহণ করেন। শপথ পরিচালনা করেন মেহজাবিন আদিবা। মাঠ পরিচালনায় ছিলেন মেলার প্রশিক্ষক কামরুল হাসান নিপু।

সবশেষে কচি-কাঁচাদের প্রিয় খালাম্মা কবি সুফিয়া কামালের কবিতা আবৃত্তি করে মেলার সদস্য ফাইজা ফারহিন ও সংগীত পরিবেশন করে জুঁই সাহা। উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আবুল কাশেম পাটোয়ারী, মেলার তরুণ সদস্য জাবেদ সিদ্দিক, সমাজকর্মী তছলিম আহমেদ, স্কুলদ্বয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক-অভিভাবিকা ও মেলার শত শত ভাই-বোন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়