চাঁদপুর, রবিবার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   চাঁদপুর ডায়াবেটিক সমিতির ৭ম বার্ষিক সাধারণ সভা
  •   ইভিএম’র ভুল ধরতে পারলে ১০ মিলিয়ন ডলার পুরস্কার
  •   মতলব দক্ষিণে মাদক বিক্রিতে বাধা দেয়ায় ছেলেকে না পেয়ে বাবাকে মারধর
  •   ভুয়া বিচারপতি বিপ্লব এখন কারাগারে
  •   মতলব দক্ষিণে কীটনাশক খেয়ে বৃদ্ধের আত্মহত্যা

প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতের সংক্রমণ-মৃত্যু কিছুটা কমেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার ভারতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৭০৪ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে ৪৮৮ জনের।

আগের দিন বৃহস্পতিবারের তুলনায় এই হার সামান্য কম। ওই দিন ভারতে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছিলেন ৩ লাখ ৪৭ হাজার ২৫৪ জন, মারা গিয়েছিলেন ৭০৩ জন।

শুক্রবার দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুতে ভারতের রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলসমূহের মধ্যে শীর্ষে ছিল মহারাষ্ট্র। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এই দিন ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় এই রাজ্যটিতে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৪৮ হাজার ২৭০ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের। এছাড়া, মহারাষ্ট্রে শুক্রবার ওমিক্রন পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১৪৪ জন।

করোনাভাইরাসের সবচেয়ে সংক্রামক ধরনের স্বীকৃতি পাওয়া ওমিক্রনের দাপটে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ভারতও তার বাইরে নয়। দেশটির ২৮টি রাজ্য ও ৯টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ২৯টিতেই শনাক্ত হয়েছে ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগী। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ভারতে বর্তমানে ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর মোট সংখ্যা ১০ হাজার ৫০ জন।

এইদিন ভারতে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ১৩ হাজার ৩৬৫ জন, যা গত ২৩৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। দেশটিতে বর্তমানে প্রতিদিন যতসংখ্যক মানুষ করোনা টেস্ট করাচ্ছেন, তাদের প্রতি ১০০ জনের মধ্যে ১৭ দশমিক ২২ জন শনাক্ত হচ্ছেন ‘পজিটিভ’ হিসেবে। অন্যদিকে, করোনা থেকে দৈনিক সুস্থতার হার বর্তমানে ৯৩ দশমিক ৩১ শতাংশ।

ভারতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি, কেরালায়। তারপর থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩ কোটি ৮৯ লাখ ১ হাজার ৪৩৫ জন এবং এ রোগে মারা গেছেন মোট ৪ লাখ ৮৮ হাজার ৯১১ জন।

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে গত ১৬ জানুয়ারি থেকে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার পর্যন্ত এই কর্মসূচিতে ব্যবহার করা হয়েছে মোট ১৬১ কোটি ডোজ করোনা টিকা।

সূত্র: এনডিটিভি অনলাইন

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়