চাঁদপুর, সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মহররম ১৪৪৪  |   ৩০ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   মন্ত্রীদের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্যে ‘ফুঁসছে’ আওয়ামী লীগ
  •   নিস্তেজ হচ্ছে ডলার, দর কমেছে প্রায় ৮ টাকা
  •   ১৪০০ লিটার চোরাই ডিজেলসহ আটক ১
  •   ,হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কলেজ শিক্ষকের উপর হামলা
  •   ছাত্রকে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকা নিহত!

প্রকাশ : ০৮ মে ২০২২, ০০:০০

মতলব উত্তরে দুর্বৃত্তদের হামলায় নৌ-ডাকাত নিহত
মতলব উত্তর ব্যুরো ॥

মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনলে দুর্বৃত্তদের হামলায় উজ্জ্বল মিজি (৪০) নামে একজন নিহত হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ৬ মে শুক্রবার ভোর রাত আনুমানিক ২টায় মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল পর্যটন কেন্দ্র এলাকায় একটি অনুষ্ঠানের জন্যে ডেকোরেটরের কাজ ও রান্নাবান্নার কাজ তদারকি করতে আসলে সেখানেই দুর্বৃত্তরা উজ্জ্বল মিজির উপর হামলা করে। খবর পেয়ে মতলব উত্তর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উজ্জ্বল মিজিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্মরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাকে তাৎক্ষণিক ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। হাসপাতালে নেয়ার কিছুক্ষণ পরেই উজ্জ্বল মিজির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

নিহত উজ্জ্বল মিজির গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার কালিরচরে। তার শ্বশুর বাড়ি মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুরে।

মতলব উত্তর থানার ওসি মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল জানান, মূলত আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করেই খুন হয়েছে উজ্জ্বল মিজি। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত পৌনে ১ টার দিকে বাবলা ডাকাতের নেতৃত্বে উজ্জল মিজিকে কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে আমরা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করাই। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে উজ্জ্বল মিজি ইন্তেকাল করেন। তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি আরও বলেন, উজ্জ্বল মিজি ২০০০ ব্যাচ নিয়ে আজ শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করছিলেন ষাটনল পর্যটন কেন্দ্রে। রাতে ওই অনুষ্ঠানের সার্বিক পরিস্থিতি দেখতে আসেন। ওখানে বাবলা ডাকাতের নেতৃত্বে প্রথমে ৮-১০ রাউন্ড গুলি ফাঁকা ছোড়ে। তার সাথের লোকজন সব ছুটাছুটি করে দূরে সরে গেলে তাকে রামদা দা ও কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে ফেলে চলে যায় বাবলা ডাকাত। পরে স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখে স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে থানায় খবর দেয়।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়